English|Bangla আজ ২৯শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার রাত ২:৪২
শিরোনাম
খানসামায় আচরণবিধি লঙ্ঘন করে সরকারী স্কুলের শিক্ষকরা ইউপি নির্বাচনী প্রচারণায়নওগাঁর রাণীনগরে সাবেক এমপি ইসরাফিলের অবৈধ স্থাপনা অপসারণ করতে নোটিশঝালকাঠিতে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অপারেশন থিয়েটার উদ্বোধনবকশীগঞ্জে একাধিক মিথ্যা মামলায় হয়রানির অভিযোগবালিজুড়ী ইউপি নির্বাচনে আ.লীগ মনোনীত প্রার্থী মির্জা ফকরুল ইসলামের মনোনয়ন পত্র জমামুম্বাইয়ে সন্ত্রাসী হামলার ১৩ বছর আজ। পাকিস্তান দূতাবাসের সামনে মানববন্ধন।তৃতীয় দফার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে জয়ের পথে লাঙ্গল প্রার্থীরাঝালকাঠিতে প্রেসক্লাবের আয়োজনে “গল্পে গল্পে শিক্ষার্থীদের মাঝে মুক্তিযুদ্ধ” শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠিতঝালকাঠিতে স্বপ্নের আলো ফাউন্ডেশন’র এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের শিক্ষা উপকরন বিতরণস্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত ডাঃ এম.আমজাদ হোসেনের নেতৃত্বে চিরিরবন্দরে মেডিকেল ক্যাম্প

মোহনগঞ্জে রকেট একাউন্ট থেকে ১৪ হাজার টাকা উধাও, থানায় জিডি

মোহনগঞ্জ (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি

নেত্রকোনার মোহনগঞ্জে মো. আজিজুল ইসলাম নামের এক যুবকের ব্যাক্তিগত রকেট একাউন্ট (ডাচবাংলা ব্যাংকের মোবাইল ব্যাংকিং) থেকে চৌদ্দ হাজার দুইশত পঞ্চাশ টাকা প্রতারণা করে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ভুক্তভোগী আজিজুল উপজেলার মাঘান সিয়াধার ইউনিয়নের গাড়াউন্দ গ্রামের মো. জালাল উদ্দিনের ছেলে। এ ঘটনায় সোমবার (১১ নভেম্বর) সন্ধ্যায় মোহনগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়রী (জিডি নং -৩৬৫) করেছেন আজিজুল।

আজিজুল জানান, গত শুক্রবার সন্ধ্যায় তার প্রতিবেশী চাচা নূরুল হুদা আজিজুলের নিজস্ব রকেট একাউন্টে (০১৭২৮১৮৭৭৫৭৯) ঢাকার সাভারের একটি দোকানের (০১৭৫৩২৭৭০৮৬১) এই পারসোনাল রকেট একাউন্ট থেকে ১০,২০০ টাকা পাঠান। কিছুক্ষণ পর (০১৯১৭৬০১৭২৬১) এই রকেট একাউন্ট (এজেন্ট) থেকে আরো ৪,০৮০ টাকা পাঠান। তখন আজিজুলের একাউন্টে মোট ব্যালেন্স দাঁড়ায় ১৪,৩০৮ টাকা (পূর্বের কিছু টাকাসহ)।

এর ২ ঘন্টা পর হঠাৎ করে আজিজুলের মোবাইলে একটি ম্যাসেজ আসে যাতে লেখা রয়েছে (ইংরেজিতে) ‘০১৭২৮১৮৮৩৩৩৭ একাউন্ট নাম্বারে ১৩,৮০০ টাকা ট্রান্সফার হয়েছে’।

এর ২ মিনিট পর আজিজুলের মোবাইলে আরেকটি ম্যাসেজ আসে যাতে লেখা রয়েছে (ইংরেজিতে) ‘০১৭২৮১৮৮৩৩৩৭’ একাউন্ট নাম্বারে ৪৫০ টাকা ট্রান্সফার হয়েছে’। ম্যাসেজ দুটি আসার পর আজিজুল তার রকেট একাউন্টের ব্যালেন্স চেক করে দেখতে পায় সেখান থেকে দুইবারে মোট ১৪,২৫০ টাকা নিয়ে নেওয়া হয়েছে।

এরপর উক্ত ঘটনা রকেটের নেত্রকোনা জেলা অফিসে জানালে তারা এর দায়ভার নিতে অস্বীকৃতি জানায়। তবে যে একাউন্টে টাকা ট্রান্সফার হয়েছে সেই মোবাইল নাম্বার যার নামে রেজিষ্ট্রেশন করা রয়েছে তার ছবিসহ পূর্ণ ঠিকানা ন্যাশনাল আইডি ভেরিফিকেশনের মাধ্যমে বের করে দেন ও আজিজুলকে আইনের সহায়তা নিতে বলেন।

পরে সোমবার সন্ধ্যায় মোহনগঞ্জ থানায় গিয়ে একটি জিডি করেন আজিজুল। এ ব্যাপারে মোহনগঞ্জ থানার ডিউটি অফিসার এএসআই সোহেল রানা বলেন, বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো