English|Bangla আজ ১৫ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার বিকাল ৫:১১
শিরোনাম
রংপুর জেলা আ’লীগ নেতা ওয়াজেদুল ইসলামের মাতা আর নেইফুলপুর শুভসংঘের নয়া কমিটির যাত্রা শুরু, আশরাফ সভাপতি, পান্না সাধারণ সম্পাদকনরসিংদীতে ঢিলেঢালা লকডাউনচিরিরবন্দরে নির্দেশ অমান্য করে দোকান খোলায় ১০ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানাফেসবুক গ্রুপ প্রিয় খানসামা’র উদ্যোগে গরীব পরিবারের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম শুরুপহেলা বৈশাখ উপলক্ষে সাপাহারে রোগীদের মাঝে উন্নত খাবার পরিবেশনকরোনা কি পৃথিবীতে দুর্ভিক্ষের হাতছানি দিচ্ছে?ইউএনও-এসিল্যান্ডের নজরদারী- নান্দাইলে কঠোরভাবে লকডাউন পালনমুরাদনগরে খেলার মাঠকে বাঁচিয়ে রাখতে মানবিক আবেদন জানিয়ে মানববন্ধনলক্ষ্মীপুরে মেশিনে কাঁটা পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু

মোহনগঞ্জে রকেট একাউন্ট থেকে ১৪ হাজার টাকা উধাও, থানায় জিডি

মোহনগঞ্জ (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি

নেত্রকোনার মোহনগঞ্জে মো. আজিজুল ইসলাম নামের এক যুবকের ব্যাক্তিগত রকেট একাউন্ট (ডাচবাংলা ব্যাংকের মোবাইল ব্যাংকিং) থেকে চৌদ্দ হাজার দুইশত পঞ্চাশ টাকা প্রতারণা করে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ভুক্তভোগী আজিজুল উপজেলার মাঘান সিয়াধার ইউনিয়নের গাড়াউন্দ গ্রামের মো. জালাল উদ্দিনের ছেলে। এ ঘটনায় সোমবার (১১ নভেম্বর) সন্ধ্যায় মোহনগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়রী (জিডি নং -৩৬৫) করেছেন আজিজুল।

আজিজুল জানান, গত শুক্রবার সন্ধ্যায় তার প্রতিবেশী চাচা নূরুল হুদা আজিজুলের নিজস্ব রকেট একাউন্টে (০১৭২৮১৮৭৭৫৭৯) ঢাকার সাভারের একটি দোকানের (০১৭৫৩২৭৭০৮৬১) এই পারসোনাল রকেট একাউন্ট থেকে ১০,২০০ টাকা পাঠান। কিছুক্ষণ পর (০১৯১৭৬০১৭২৬১) এই রকেট একাউন্ট (এজেন্ট) থেকে আরো ৪,০৮০ টাকা পাঠান। তখন আজিজুলের একাউন্টে মোট ব্যালেন্স দাঁড়ায় ১৪,৩০৮ টাকা (পূর্বের কিছু টাকাসহ)।

এর ২ ঘন্টা পর হঠাৎ করে আজিজুলের মোবাইলে একটি ম্যাসেজ আসে যাতে লেখা রয়েছে (ইংরেজিতে) ‘০১৭২৮১৮৮৩৩৩৭ একাউন্ট নাম্বারে ১৩,৮০০ টাকা ট্রান্সফার হয়েছে’।

এর ২ মিনিট পর আজিজুলের মোবাইলে আরেকটি ম্যাসেজ আসে যাতে লেখা রয়েছে (ইংরেজিতে) ‘০১৭২৮১৮৮৩৩৩৭’ একাউন্ট নাম্বারে ৪৫০ টাকা ট্রান্সফার হয়েছে’। ম্যাসেজ দুটি আসার পর আজিজুল তার রকেট একাউন্টের ব্যালেন্স চেক করে দেখতে পায় সেখান থেকে দুইবারে মোট ১৪,২৫০ টাকা নিয়ে নেওয়া হয়েছে।

এরপর উক্ত ঘটনা রকেটের নেত্রকোনা জেলা অফিসে জানালে তারা এর দায়ভার নিতে অস্বীকৃতি জানায়। তবে যে একাউন্টে টাকা ট্রান্সফার হয়েছে সেই মোবাইল নাম্বার যার নামে রেজিষ্ট্রেশন করা রয়েছে তার ছবিসহ পূর্ণ ঠিকানা ন্যাশনাল আইডি ভেরিফিকেশনের মাধ্যমে বের করে দেন ও আজিজুলকে আইনের সহায়তা নিতে বলেন।

পরে সোমবার সন্ধ্যায় মোহনগঞ্জ থানায় গিয়ে একটি জিডি করেন আজিজুল। এ ব্যাপারে মোহনগঞ্জ থানার ডিউটি অফিসার এএসআই সোহেল রানা বলেন, বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো