English|Bangla আজ ৪ঠা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার রাত ১২:২২
শিরোনাম
ভালুকায় আতংকে আছে নাজমার পরিবারকুড়িগ্রামে গাছের ডাল পড়ে প্রান গেল কাঠঁ ব্যবসায়ীরনাচনাপাড়ায় বাস্তবে একটি ইবতেদায়ী মাদ্রাসা থাকলেও একই নামে কাগজ-কলমে দেখানো হচ্ছে দুটি।পত্নীতলায় প্রধানমন্ত্রীর উপহার শিশু খাদ্য বিতরণসাপাহারে ভুয়া কবিরাজের চিকিৎসায় হাত হারাতে বসেছে সাত বছরের শিশু!পলাশবাড়ীতে জাতীয় শোক দিবস পালন উপলক্ষে প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিতনাগেশ্বরী কামিল মাদরাসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ হলেন মোহাম্মদ অাব্দুল অাউয়ালকুড়িগ্রামে মোবাইলে অনলাইনে গেম খেলায় ১১ শিক্ষার্থী আটক- মুচলেকায় অভিভাবকের কাছে হস্তান্তরডিসিসিআই’র আয়োজনে ” সাস্টেইনএবল রিভার ড্রেজিং: চ‍্যালেঞ্জেস এন্ড ওয়ে ফরওয়ার্ড ” শীর্ষক অনলাইন আলোচনা সভায় নৌ প্রতিমন্ত্রীখানসামায় লকডাউন বাস্তবায়নে চলছে এসিল্যান্ড এর বাজার মনিটরিং ও ভ্রাম্যমাণ অভিযান

ভোররাতে চট্টগ্রাম ও ঢাকা অভিমুখী দুই ট্রেনের সংঘর্ষে নিহত ১৫

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা অভিমুখী ‘তুর্ণা নিশীথা’র সঙ্গে সিলেট থেকে চট্টগ্রাম অভিমুখী ‘উদয়ন এক্সপ্রেস’ ট্রেনের সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই নিহত হয়েছেন ১৫ জন। চট্টগ্রাম রেলস্টেশন থেকে সোমবার রাত ১১টায় ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাওয়ার চার ঘন্টা পর ভয়াবহ দুর্ঘটনার কবলে পড়ে তুর্ণা নিশীথা এক্সপ্রেস।

মঙ্গলবার (১১ নভেম্বর) দিবাগত রাত ২টা ৫৩ মিনিটে কসবা উপজেলার মন্দবাগ রেলওয়ে স্টেশনের ক্রসিংয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনার পরপরই ঢাকা-চট্টগ্রাম এবং চট্টগ্রাম-সিলেটের সঙ্গে রেল যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে।

আকস্মিক এই দুর্ঘটনায় দুটি ট্রেনের বেশ কয়েকটি বগি দুমড়ে মুচড়ে গেছে। এসব বগির নিচে আরও মরদেহ থাকতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শী জানান, ‘উদয়ন এক্সপ্রেস’ ট্রেনটি ‘তুর্ণা নিশীথা’ ট্রেনটিকে সাইড দিতে গিয়ে উদয়নের অর্ধেক বগি অন্য লাইনে ঢোকার পর বাকি বগিগুলোতে ‘তুর্ণা নিশীথা’ ধাক্কা লাগে। এতে মুহূর্তেই দুটি বগি দুমড়ে-মুচড়ে যায়।

অপর এক প্রত্যক্ষদর্শী সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে লিখেছেন, ৭২৪ উদয়ন এক্সপ্রেস-২৯৩৪ মন্দবাগ লুপ লাইনে প্রবেশকালে ঢাকা অভিমুখী ৭৪১ তুর্ণা এক্সপ্রেস-২৯২৩ বিপরীত দিক থেকে এসে সংঘর্ষ ঘটায়। এতে উদয়নের অন্তত দুটি কোচ মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

দুর্ঘটনার পরপরই স্থানীয় অধিবাসীরা ছাড়াও কসবা উপজেলা প্রশাসন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স, পুলিশ, রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ উদ্ধার কাজ চালাচ্ছে।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো