English|Bangla আজ ৯ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭:৫৩
শিরোনাম

ব্যক্তিগত তহবিল থেকে বাঁশের সাঁকো নির্মাণ, আনোয়ারা নদীতে ব্রিজের আশ্বাস

মোঃ আবুল কালাম জাকারিয়া, জামালগঞ্জ প্রতিনিধি-::

সুনামগঞ্জ জেলার জামালগঞ্জ উপজেলাধীন ভীমখালী ইউনিয়নের মৌলিনগরে অবস্থিত আনোয়ারা নদীতে ভীমখালী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মোঃ দুলাল মিয়ার ব্যক্তিগত তহবিল থেকে বাঁশের সাঁকো নির্মাণ।

এর আগে উক্ত নদীটি পারাপারের জন্য ব্যবহার করা হতো হাতে বাওয়া ছোট নৌকা। যাতে অত্র এলাকার মেহনতী গরিব মানুষের অর্থের অপচয় সহ সময়ের অপচয় হতো অধিক। উক্ত নদীতে ব্রিজ হওয়ায় এলাকাবাসীর অর্থের অপচয় কমলো।

এলাকাবাসী আলোকিত সকাল প্রতিনিধিকে জানান, আনোয়ারা নদীতে ব্রিজ হলে ভীমখালী, হাসনাবাদ, কালিপুর, কামলাবাজ, মাতারগাও, খুচারগাও, মির্জাপুর, বিছনা, নোয়াগাঁও, বাহাদুরপুর, চান্দবাড়ি ও মৌলিনগরের জনগণের দেড় ঘন্টার স্থলে ২৫ মিনিটে উপজেলা সদরে পৌঁছা সম্ভব। নোয়াগাঁও বাজার থেকে রাস্তার কাজ শুরু হয়ে পুরাতন চাঁদ বাড়ি এসে সমাপ্ত হয়ে যায়।

আবার লাল বাজার থেকে কাজ শুরু হয়ে মাহমুদপুরের আব্দুল আজিজ ওরফে বৈঠাশাহের বাড়ি সংলগ্ন খারার ব্রিজ পর্যন্ত রাস্তার কাজ করা হয়। এখন শুধু আনোয়ারা ব্রিজ সহ দেড় কিলো রাস্তা না থাকায় ঐতিহাসিক বাজার ভীমখালি থেকে ২৫ মিনিটের জায়গায় দেড় ঘণ্টায় উপজেলা সদরে পৌছতে হচ্ছে উল্লেখিত গ্রামবাসীর।

ভীমখালি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ দুলাল মিয়া বলেন, আমি উক্ত বৃষ্টির জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করে যাচ্ছি। আমার ব্যক্তিগত অর্থ থেকে আজ আমার ইউনিয়নের কয়েকটি গ্রামবাসির জন্য আনোয়ারা নদীতে পারাপারের জন্য বাঁশের সাঁকো করে দিলাম। সাথে এই আশ্বাস দিচ্ছি যে আগামী এক বছরের ভিতরে এই আনোয়ারা নদীতে ব্রিজ হবে।

উক্ত আনোয়ারা নদীতে বাঁশের সাঁকো পেয়ে পথচারীরা খুবই আনন্দিত। এলাকাবাসী ধন্যবাদ জানান, বর্তমান ভীমখালি ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মোঃ দুলাল মিয়া কে।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো