English|Bangla আজ ২৯শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার রাত ২:২৮
শিরোনাম
খানসামায় আচরণবিধি লঙ্ঘন করে সরকারী স্কুলের শিক্ষকরা ইউপি নির্বাচনী প্রচারণায়নওগাঁর রাণীনগরে সাবেক এমপি ইসরাফিলের অবৈধ স্থাপনা অপসারণ করতে নোটিশঝালকাঠিতে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অপারেশন থিয়েটার উদ্বোধনবকশীগঞ্জে একাধিক মিথ্যা মামলায় হয়রানির অভিযোগবালিজুড়ী ইউপি নির্বাচনে আ.লীগ মনোনীত প্রার্থী মির্জা ফকরুল ইসলামের মনোনয়ন পত্র জমামুম্বাইয়ে সন্ত্রাসী হামলার ১৩ বছর আজ। পাকিস্তান দূতাবাসের সামনে মানববন্ধন।তৃতীয় দফার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে জয়ের পথে লাঙ্গল প্রার্থীরাঝালকাঠিতে প্রেসক্লাবের আয়োজনে “গল্পে গল্পে শিক্ষার্থীদের মাঝে মুক্তিযুদ্ধ” শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠিতঝালকাঠিতে স্বপ্নের আলো ফাউন্ডেশন’র এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের শিক্ষা উপকরন বিতরণস্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত ডাঃ এম.আমজাদ হোসেনের নেতৃত্বে চিরিরবন্দরে মেডিকেল ক্যাম্প

বরগুনায় মুক্তিযোদ্ধার উপর হামলা!

মোঃ সানাউল্লাহ, বরগুনা প্রতিনিধিঃ

জমি নিয়ে বিরোধেদের জেরে বরগুনার সদর উপজেলার কলেজ সড়কের বাসিন্দা আবদুস সোবাহান নামের একজন মুক্তিযোদ্ধার ওপর হামলা অভিযোগ উঠেছে।

স্থানীয়দের কাছ থেকে জানা যায় বৃহস্পতিবার বিকালে কলেজ সড়কের শ্যামলী হলের পাশ্চিম পাশে তাঁর মালিকানাধীন জমিতে কাজ করতে গেলে প্রতিপখ শাহীন বাঁধা দেয়। মাগরিবের নামাজ শেষে বাসায় ফেরার পথে শাহীন ও তার ছেলে সাজ্জাদ হোসেন জ্যাকি, ভাইয়ের ছেলে জয়, বোনের ছেলে রিমনসহ বেশ কয়েকজন সোবাহানকে লাঞ্চিত করে। এসময় স্থানীয়রা বাঁধা দিতে আসেলে মিজান ও সবুজ নামের দুজন আহত হয়। পরে তাদের চিকিৎসার জন্য বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মুক্তিযোদ্ধা সোবাহান বলেন, শাহীন সিকদার পাথরঘাটা উপজেলার কাকচিড়া এলাকার কুখ্যাত রাজাকার চান মিয়ার ছেলে। একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের সময় জেলার পিস কমিটির চেয়ারম্যান খলিলের ঘনিষ্ঠ সহযোগী হিসেবে পরিচিত ছিল। পাক আর্মির ক্যাম্প থেকে পালিয়ে যাওয়া ৩০জন নারী পুরুষকে এই চান মিয়া ধরিয়ে দিয়েছিল।

এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে জুলফিকার শাহীনের ছেলে সাজ্জাদ হোসেন জ্যাকি সিকদার বলেন, আবদুস সোবাহান জোর করে বিরোধীয় সীমানায় কাজ করছিলেন। আমরা তাকে কাজ করতে নিষেধ করেছি।

বরগুনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবির মোহাম্মদ হোসেন বলেন, এ ঘটনায় মুক্তিযোদ্ধা সোবাহান বাদি হয়ে অভিযোগ দায়ের করেছেন। তদন্ত পূর্বক আইন আনুই ব্যাবস্থা গ্রহন করবো।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো