English|Bangla আজ ২৫শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার সকাল ১০:২৬
শিরোনাম
গ্রামীণ ব্যাংক সাপাহার শাখায়  শিক্ষা বৃত্তি ও গাছের চারা বিতরণতানোর থানার তৎপরতায় আইন-শৃঙ্খলার উন্নতিপিকআপভ্যান-অটোরিকশার সংঘর্ষে মা নিহত, ছেলেসহ আহত ৪উলিপুরে পুলিশের ভয়ে ১০মাস পালিয়ে থাকা হত্যা মামলার আসামী আটকগাইবান্ধায় করোনা আক্রান্ত বেড়ে ১ হাজার ৯২৪, নতুন শনাক্ত ১৯গোবিন্দগঞ্জ প্রেস ক্লাবের ৫৩ সদস্য বিশিষ্ট দ্বিবার্ষিক পূর্ণাঙ্গ কার্যনির্বাহী কমিটি ঘোষিতপলাশবাড়ীতে পানিতে ডুবে এক শিক্ষার্থী’র মৃত্যুভালুকায় সুদের টাকার চাপে আদিবাসী বিষপানে আত্মহত্যাপলাশবাড়ীতে আওয়ামীলীগের ৭২তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিতনান্দাইলে বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে ‘জাস্ট ম্যারিড’গ্লোবাল ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত

পীরগাছায় ছাত্রীর বাবাকে পেঠালেন প্রধান শিক্ষক

মোঃ লাভলু মিয়া রংপুর প্রতিনিধিঃ

রংপুরের পীরগাছায় এবার শিক্ষার্থী নয়, অভিভাবককে পেটালেন প্রধান শিক্ষক। মেয়ের এসএসসি পাশের শিক্ষা সনদ চাওয়ায় নিতাই চন্দ্র শীল নামে এক অভিভাবককে চড়-থাপ্পর ও শারীরিক ভাবে লাঞ্চিত করেন উপজেলার কান্দি ইউনিয়নের তেয়ানী মনিরাম দ্বি-মুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাহবুর রহমান। আর এ ঘটনাটি ঘটেছে আজ মঙ্গলবার সকাল ১১ টায় ওই স্কুল প্রাঙ্গণে।

এ ব্যাপারে নির্যাতনের শিকার ওই অভিভাবক উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট একটি অভিযোগ দিয়েছেন।
জানা গেছে, গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার উত্তর ফলগাছা গ্রামের নিতাই চন্দ্র শীলের মেয়ে গীতা রানী ২০১৪ সালে কান্দি ইউনিয়নের তেয়ানী মনিরাম দ্বি-মুখী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পাশ করেন। সম্প্রতি তার শিক্ষা সনদের বিশেষ প্রয়োজন হওয়ায় তার পিতাকে সনদটি আনতে গত ১০ নভেম্বর বিদ্যালয়ে পাঠান।

এসময় প্রধান শিক্ষক মাহবুর রহমান (মতলুবর) সনদ রেজিষ্টার দেখে তাকে পরে আসতে বলেন। এরপর অভিভাবক নিতাই চন্দ্র শীল বেশ কয়েক বার প্রধান শিক্ষককের কাছে গেলে তিনি বিভিন্ন তালবাহানা শুরু করেন।

আজ মঙ্গলবার সকালে ওই অভিভাবক আবারো প্রধান শিক্ষককে বিদ্যালয় সংলগ্ন দোকানে গিয়ে সনদ চাইলে তিনি অভিভাবকের নিকট এক হাজার টাকা দাবি করেন এবং বার বার আসায় অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ শুরু করেন। এতে ওই অভিভাবক প্রতিবাদ করলে তিনি সকলের সামনে আমাকে চড়-থাপ্পর ও লাথি মারেন এবং শারীরিকভাবে লাঞ্চিত করেন। পরে দোকানের অন্যান্য লোকজন এসে তাকে প্রধান শিক্ষকের হাত থেকে রক্ষা করেন।

নির্যাতনের শিকার অভিভাবক নিতাই চন্দ্র শীল বলেন, মারপিটের পর প্রধান শিক্ষক আমাকে দেখে নেয়ার হুমকি-ধামকি দেন। আমি বর্তমানে চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। এ ব্যাপারে পীরগাছা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছি।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক মাহবুর রহমানের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি নির্যাতনের কথা অস্বীকার করেন এবং সামান্য গন্ডোগোল হয়েছে বলে জানান।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো