English|Bangla আজ ২রা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার রাত ২:২৩
শিরোনাম
পত্নীতলায় প্রধানমন্ত্রীর উপহার শিশু খাদ্য বিতরণসাপাহারে ভুয়া কবিরাজের চিকিৎসায় হাত হারাতে বসেছে সাত বছরের শিশু!পলাশবাড়ীতে জাতীয় শোক দিবস পালন উপলক্ষে প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিতনাগেশ্বরী কামিল মাদরাসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ হলেন মোহাম্মদ অাব্দুল অাউয়ালকুড়িগ্রামে মোবাইলে অনলাইনে গেম খেলায় ১১ শিক্ষার্থী আটক- মুচলেকায় অভিভাবকের কাছে হস্তান্তরডিসিসিআই’র আয়োজনে ” সাস্টেইনএবল রিভার ড্রেজিং: চ‍্যালেঞ্জেস এন্ড ওয়ে ফরওয়ার্ড ” শীর্ষক অনলাইন আলোচনা সভায় নৌ প্রতিমন্ত্রীখানসামায় লকডাউন বাস্তবায়নে চলছে এসিল্যান্ড এর বাজার মনিটরিং ও ভ্রাম্যমাণ অভিযানচাঁপাইনবাবগঞ্জে গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় মৃত্যু ১, শনাক্ত ২৭বান্দরবানে টানা বর্ষণে পানিবন্দী মানুষের মাঝে খাবার পৌঁছে দিল সেনাবাহিনীচট্রগ্রাম নগরীর আগ্রাবাদে নারী ছিনতাইকারী গ্রেফতার

দেশে এত উন্নয়ন হচ্ছে তার পরও রোগীরা কি কারণে বাইরে যাচ

মনির হোসেন, গাজীপুর

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, দেশের আটটি বিভাগে আটটি ক্যান্সার ইনস্টিটিউট স্থাপন করা হবে। এছাড়া আটটি বিভাগে আটটি কিডনি ইনস্টিটিউটও করা হবে। শিগগিরই দেশে ৫০০ ইউনিট ডায়াগনসিস ও ৫০০ ইউনিট আইসিইউ বেড বাড়ানো হবে। ঢাকায় ৩০০ বেডের ক্যান্সার ইনস্টিটিউটকে ৫০০ বেডে উন্নিত করা হয়েছে।

মন্ত্রী রোববার সন্ধ্যায় গাজীপুরে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পরিদর্শন শেষে এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কল্যাণ মন্ত্রনালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব আসাদুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও হাসপাতালের পরিচালক ডা. আমীর হোসাইন রাহাতের সঞ্চালনায় মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত সচিব হাবীবুর রহমান খান, মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. আব্দুল কাদের, জেলা বিএমএ সহসভাপতি ডা. মনিরুজ্জামান, স্বাচিপ এর সাধারণ সম্পাদক ডা. সুশান্ত কুমার সরকার প্রমুখ।

প্রধান অতিথি আরও বলেন, দেশে স্বাস্থ্য সেবার মান উন্নয়নের চেষ্টা করে যাচ্ছি। ইতোমধ্যে সাড়ে চার হাজার নতুন চিকিৎসক নিয়োগ দেয়া হয়েছে। আরও সাড়ে পাঁচ হাজার নতুন চিকিৎসক নিয়োগ দেয়া হবে।

এর আগে মন্ত্রী গাজীপুরের কাপাসিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমেপ্লক্সে এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, দেশে এত উন্নয়ন হচ্ছে, এত কিছু করার পর রোগীরা বাইরে যাচ্ছে কেন? এত উন্নয়নের পরও রোগীরা কি কারণে বাইরে যাচ্ছে তা খুঁজে বের করতে হবে। গতানুগতিক কাজ না করে নতুন কিছু চিন্তা করতে হবে।

স্থানীয় সংসদ সদস্য সিমিন হোসেন রিমির সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের সচিব শেখ ইউসুফ হারুন, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব আসাদুল ইসলাম, অতিরিক্ত সচিব হাবীবুর রহমান, পরিবার পরিকল্পনা কল্যাণ বিভাগের মহাপরিচালক কাজী আ খ ম মহিউল ইসলাম, পরিবার পরিকল্পনা পরিচালক ডা. মো. শরীফ, উপ পরিচালক লাজু সামসাদ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আবু নাসের, অতিরিক্তি পুলিশ সুপার জহিরুল ইসলাম, ইউএনও ইসমত আরা প্রমুখ।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো