English|Bangla আজ ৪ঠা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার রাত ১২:৪১
শিরোনাম
ভালুকায় আতংকে আছে নাজমার পরিবারকুড়িগ্রামে গাছের ডাল পড়ে প্রান গেল কাঠঁ ব্যবসায়ীরনাচনাপাড়ায় বাস্তবে একটি ইবতেদায়ী মাদ্রাসা থাকলেও একই নামে কাগজ-কলমে দেখানো হচ্ছে দুটি।পত্নীতলায় প্রধানমন্ত্রীর উপহার শিশু খাদ্য বিতরণসাপাহারে ভুয়া কবিরাজের চিকিৎসায় হাত হারাতে বসেছে সাত বছরের শিশু!পলাশবাড়ীতে জাতীয় শোক দিবস পালন উপলক্ষে প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিতনাগেশ্বরী কামিল মাদরাসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ হলেন মোহাম্মদ অাব্দুল অাউয়ালকুড়িগ্রামে মোবাইলে অনলাইনে গেম খেলায় ১১ শিক্ষার্থী আটক- মুচলেকায় অভিভাবকের কাছে হস্তান্তরডিসিসিআই’র আয়োজনে ” সাস্টেইনএবল রিভার ড্রেজিং: চ‍্যালেঞ্জেস এন্ড ওয়ে ফরওয়ার্ড ” শীর্ষক অনলাইন আলোচনা সভায় নৌ প্রতিমন্ত্রীখানসামায় লকডাউন বাস্তবায়নে চলছে এসিল্যান্ড এর বাজার মনিটরিং ও ভ্রাম্যমাণ অভিযান

তানোর থানার তৎপরতায় আইন-শৃঙ্খলার উন্নতি

সারোয়ার হোসেন,তানোর : রাজশাহীর তানোর থানার তৎপরতায় কমেছে পারিবারিক কলহ বিবাদ, বাল্য বিয়ে, মাদক সন্ত্রাস। সেই সাথে বেড়েছে আইন-শৃঙ্খলার উন্নতি। পাশাপাশি বেড়েছে পুলিশের প্রতি জনগণের আস্থা ও ভরসা। এতে করে ”পুলিশ জনতা জনতাই পুলিশ” স্লোগানটি বাস্তবে পরিণত হয়েছে বর্তমান তানোর থানা। ফলে,অন্যদিকে পুলিশের নিরুৎসাহিত ভূমিকা দেখে সস্তি ফিরে আসতে শুরু করেছে এলাকাবাসীর মধ্যে। এতে তানোর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি রাকিবুল হাসানের এমন তৎপরতায় সাধুবাদ জানিয়েছেন তানোর উপজেলার জনসাধারণ।

জানা গেছে, তানোর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি রাকিবুল হাসান রাকিব সকাল থেকে ভোর রাত পর্যন্ত থানায় উপস্থিত থেকে উপজেলার আইনশৃংখলা পরিস্থতির সর্বাধিক পর্যালোচনা তদারকি করে যাচ্ছেন। সেই সাথে উপজেলার ৭টি ইউনিয়ন ও ২টি পৌরসভার বিট পুলিশিংয়ের কর্যক্রম প্রতিনিয়ত মনিটরিং করা সহ বিট পুলিশিংয়ের সদস্যদের নিয়ে প্রায় সময় আইন শৃংখলা পরিস্থিতি নিয়ে সভা সমাবেশের মাধ্যমে পারিবারিক কলহ বিবাদ সহজেই নিরসন করছেন তিনি।

তানোর পৌর এলাকার বেশকিছু জনসাধারণ বলেন,একসময় তানোর থানা ছিলো মাদকের অভয়ারণ্যে। সন্ধ্যা নামলেই উপজেলার বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে দেশীয় চোলাই মদের বসতো ভাগাড়। আর চুরি ছিনতায়ের ভয়ে কেউ ঠিক মত দুচোখ মেলে বাড়িতে ঘুমাতে পারতোনা। পুলিশ প্রশাসনের তেমন কোন দৌরাত্ম না থাকায় প্রায়দিন রাতে উপজেলার বিভিন্ন বাড়ি থেকে গরু, ছাগল, ভ্যান,সাইকেল, মোটরসাইকেল সহ অস্ত্র ঠেকিয়ে বাড়ির মালামাল লুটপাট করা হলেও পুলিশের তেমন কোন ভূমিকা পালন করতে দেখা যেতো না।

কিন্তু বর্তমানে পুলিশের সৌজন্যে মূলক কাজকর্ম দেখে অনেকটা জনসচেতনতা সৃষ্টি হয়েছে সাধারণ মানুষের মধ্যে। যার ফলে, উপজেলা জুড়ে অনেকটা বাল্য বিয়ে,মাদক নির্মূল, চুরি ছিনতাই, সাধারণ অপরাধ কমে শুন্যের কোটায় নেমে এসেছে। এতে করে পুলিশের ভুমিকা দেখে উপজেলার জনসাধারণের মধ্যে একপ্রকার সস্তি বিরাজ করছে। যা শুধু একমাত্র তানোর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি রাকিবুল হাসান রাকিবের জন্য সম্ভব হয়েছে।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো