English|Bangla আজ ১৮ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার বিকাল ৩:৪৪
শিরোনাম

জেলা শিক্ষা অফিসার দিনাজপুর এর অনলাইন স্কুলের শুভ উদ্বোধন

চিরিরবন্দর, দিনাজপুর প্রতিনিধি

বৈশ্বিক মহামারী করোনা পরিস্থিতিতে বাংলাদেশে তথা দিনাজপুর জেলার ছাত্র-ছাত্রীদের উপর শিক্ষাক্ষেত্রে বিরূপ প্রভাব পড়েছে। ছাত্র-ছাত্রীদের পড়াশোনায় যেন ব্যঘাত না ঘটে সেজন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অনলাইন শিক্ষা, প্রশিক্ষণ ও সভা চালু করার জন্য দিক নির্দেশনা দিয়েছেন। সেই আলোকে জেলা প্রশাসন, দিনাজপুর এর উদ্যোগে এবং মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর, দিনাজপুরের সহযোগিতায় জেলার ১৩টি উপজেলাব্যাপী শিক্ষার্থীদের জন্য অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রম ৯জুলাই, বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হয়েছে। উক্ত কার্যক্রমে ডিও দিনাজপুর অনলাইন স্কুলের শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন মান্যবর জেলা শিক্ষা অফিসার, দিনাজপুর জেলা, জনাব মোঃ রফিকুল ইসলাম।

সকাল ১০ঘটিকা থেকে দুপুর ১২ ঘটিকা পর্যন্ত দিনাজপুর জেলার আইসিটিতে দক্ষ শিক্ষকদের মাধ্যমে অনলাইন ক্লাস শুরু হয়। শুক্রবার ব্যতীত সপ্তাহের ৬দিন, ৪০মিনিট সময় ব্যাপী ক্লাসে, ৩০মিনিট সময় শিক্ষাদান এবং ১০মিনিট প্রশ্নোত্তর পর্ব থাকবে। জেলার মাধ্যমিক পর্যায়ের সকল শিক্ষার্থী যেন এ সুযোগ গ্রহণ করত পারে এবং ক্লাসের পরিধি বৃদ্ধি করা যায় সে বিষয়ে সময়ে কার্যকর উদ্যোগ নেওয়া হবে। অনলাইন শিক্ষাদান কার্যক্রম দিনাজপুর জেলার লোকাল ক্যাবল চ্যানেল এর পাশাপাশি জেলা প্রশাসকের ফেসবুক লাইভেও সরাসরি সম্প্রচার করা হবে। শুরুতে ইংরেজি, গণিত ও বিজ্ঞানের উপর প্রাধান্য আরোপ করা হবে পরবর্তীতে সকল বিষয়ের উপর শিক্ষাদান কার্যক্রম চালু হবে। প্রথমে দিনাজপুর জিলা স্কুল, দিনাজপুর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, আমেনা বাকী রেসিডেন্সিয়াল মডেল স্কুল এন্ড কলেজ শিক্ষকদের দ্বারা শিক্ষাদান কার্যক্রম চালু হয়।

পরবর্তীতে অন্যান্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান যারা এই কার্যক্রমে ভূমিকা রাখতে আগ্রহী সেসকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরাও এই কার্যক্রমে ভূমিকা রাখতে পারবেন বলে জানিয়েছেন জেলা শিক্ষা অফিসার মোঃ রফিকুল ইসলাম। দিনাজপুর জেলার সকল প্রধান শিক্ষক, শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের এ কার্যক্রমে সংযুক্ত থেকে দিনাজপুর জেলার শিক্ষার্থীদের মানোন্নয়নে কার্যকর ভূমিকা রাখতে সকলকে বিনীত অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি।

উক্ত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সহকারী জেলা শিক্ষা অফিসার জনাব মোঃ আব্দুল বারী বলেন, “এ অনলাইন শিক্ষা ব্যবস্থার যে মডেলটি তৈরি করা হয়েছে তা প্রতিটি শহর থেকে গ্রাম এবং কেন্দ্র থেকে প্রান্ত প্রতিটি জায়গায় ছড়িয়ে দিতে আমরা”। শুধু করোনা ভাইরাস পরিস্থিতির সময়েই নয়, করোনা ভাইরাস পরবর্তী সময়েও যাতে আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে শিক্ষা ব্যবস্থাকে বৈষম্যহীনভাবে সবার জন্য সমানভাবে উপহার দেয়া যায় সেই চেষ্টা আমাদের অব্যাহত থাকবে”।
অনুষ্ঠানে আরও অংশগ্রহণ করেছিলেন জেলার সকল আইসিটি প্রোগ্রামার, সহকারী প্রোগ্রামার, অ্যম্বাসিডর, আইসিটি শিক্ষকগণ।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো