English|Bangla আজ ২৪শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার রাত ৮:২৬
শিরোনাম
রাণীনগরে লকডাউন বাস্তবায়নে তৎপর পুলিশ; ১৩ জনকে মামলা দুইটি গাড়ি আটকরাণীনগরে লকডাউন অমান্য করায় ৪৪ জনকে জরিমানাপ্রখ্যাত গণসংগীত শিল্পী ফকির আলমগীর এর মৃত্যুতে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করেন নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহ্‌মুদ চৌধুরী এমপিচট্রগ্রামে চালু হলো সিএমপিতে ‘বডি ওর্ন ক্যামেরা’কুমিল্লায় করোনায় আরও মৃত্যু ০৬ নতুন শনাক্ত ২৬৩জনদেবীদ্বারে সন্তানের পিতৃপরিচয়ের দাবীতে প্রতিবন্ধী মা ঘুরছে সমাজের দ্বারে দ্বারেনাগেশ্বরীতে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় আপন দুই ভায়রা ভাইয়ের মৃত্যুফুলবাড়ীর মিষ্টিকে বাচাঁতে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিনপত্নীতলায় ট্রাক্টরের ধাক্কায় আপন দুই ভাই একজন নিহত অপর জন আহততাহিরপুরে পর্যটক ভ্রমণ নিষিদ্ধে মাইকিং ও মোবাইল কোর্টে জরিমানা

চট্টগ্রাম লোহাগাড়ায় বালু পাচারের সংবাদ সংগ্রহে সংবাদকর্মী লাঞ্চিত

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি :

চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার আধুনগর ইউনিয়নে কুলপাগলীর ছড়ায় প্রশাসনের জব্দকৃত বালু লুটপাটের অভিযোগ উঠেছে। এতে প্রশাসনের ভূমিকাও রহস্যজনক বলে মনে করছে এলাকার সচেতন মহল।

তথ্য অনুসন্ধানে জেরধরে প্রশাসনকে অবহিত করায় ক্ষিপ্ত হয়ে লোহাগাড়ায় কর্মরত দৈনিক দিনকাল ও দৈনিক দেশের কণ্ঠের সিনিয়র সাংবাদিক দেলোয়ার হোসেন রশিদির উপর চড়াও হয় ভূমিদুস্য নাছির ওরফে ডুস্যা নাছির। সে চুনতি বাজারের জয়নাল আবেদীনের পুত্র।

ঘটনা সূত্রে জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার আনুমানিক রাত ৯টায় চুনতি বাজার থেকে ঐ সাংবাদিক বাড়ি যাবার পথে রাস্তায় গতিরোধ করে ডুস্যা নাছিরের সন্ত্রাসী বাহিনী।

সূত্রে জানা যায়, গত নভেম্বর মাসে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকারি, বালুরাক্ষুসী, বালুদস্যু ও ভূমিদস্যুর বিরুদ্ধে সাড়াষি অভিযান পরিচালনা করে প্রশংসনীয় ভূমিকা পালন করে উপজেলা প্রশাসন। ঐসময় বিভিন্ন বালু মহাল চিহ্নিত করে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়। জানা যায়, উপজেলায় পশ্চিম চুনতি সীমানায় আধুনগর রশিদের ঘোনা মৌজায় কূলপাগলী ছড়ায় বনারছটা এলাকায় অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে দীর্ঘদিন যাবৎ পাচার করে আসছে বালুদস্যু নাছির গং। বালু উত্তোলনে জমিনের চাষের উর্বরতা দিন দিন হ্রাস পাচ্ছে এবং ছড়ার দু’পাশ্বে হাজার হাজার হেক্টর সবজি চাষের জমি মহালে খেয়ে ফেলছে। এছাড়া রাতারাতি ডেম্পার ট্রাক দিয়ে বালু পাচারে সড়কের ব্যহাল অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। এতে ভোগান্তিতে পড়ছে এলাকাবাসী।

অভিযোগের প্রেক্ষিতে প্রশাসন ঐ মহালে ১৪৪ ধারা জারি করে। বিগত ১ সপ্তাহের মধ্যে নাছির গংরা প্রশাসনের জারিকৃত আইনকে বৃদ্ধাংগুলি দেখিয়ে রাতের আঁধারে বালু পাচার করতে থাকে। এ সংবাদ পেয়ে কর্মরত সাংবাদিকগণ প্রশাসনকে অবহিত করে। এর জের ধরে সাংবাদিকের উপর চড়াও হয়েছে বলে জানা যায়।

তাছাড়া তৎকালীন বিএনপি – জামায়াত সরকারের ক্ষমতা রদবদলের পর কিছু দিন গা ঢাকা দেয় এই ভূমিদস্য। পরে সরকার দলীয় স্বার্থন্নেষী মহলের প্রভাবে এলাকার নিরীহ লোকজনের জায়গা জোর যবর দখলসহ নানা রকম কু-কর্ম করছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

এ বিষয়ে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সালাউদ্দিন হিরু জানান, অনেক জামায়াত-শিবিরের ডোনার ব্যক্তিরা পর্দার আড়াল থেকে বিভিন্ন অপরাধ প্রবণতা করে যাচ্ছে নিয়মিত। যা আমাদের দলীয় লোকদের উপর আঘাত হানছে। সাংবাদিককে নাজেহাল করার নিন্দা ও তদন্ত করে আইনের আওতায় আনার জন্য প্রশাসনের প্রতি আহবান জানাচ্ছি।

এ ব্যাপারে চুনতি পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (তদন্ত) মোহাম্মদ আলমগীর বলেন, শুনেছি সাংবাদিককে রাস্তাগতিরোধ করে নাজেহাল করেছে। ইতিমধ্যে নাছিরের বিরুদ্ধে অন্যায়ভাবে সাধারণ মানুষের জায়গা জোর যবর দখলের অভিযোগ আছে। নির্দিষ্ট অভিযোগ না থাকায় তাকে আইনের আওতায় আনা সম্ভব হচ্ছে না।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত নাছির মুটোফোনে বলেন, সামান্য কথা কাটা কাটি হয়েছে। তবে তিনি বালু মহলের বিষয়ে কিছু বলতে রাজি হয়নি।

এ ব্যপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তৌসিফ আহমেদ জানান, নিষিদ্ধ জারিকৃত বালু মহাল লুটপাটের বিষয়ে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো