English|Bangla আজ ২৩শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার ভোর ৫:৫৫
শিরোনাম
লক্ষ্মীপুর-২ সংসদ উপনির্বাচন: নৌকার প্রার্থীর বিজয়পত্নীতলায় সরকারি নির্দেশনা না মানায় ভ্রাম্যমান আদালতে জরিমানাপলাশবাড়ীর হোসেনপুর ইউনিয়নে ভিজিডি কার্ডধারীদের মাঝে চাল বিতরণনরসিংদীতে পলাশের ডাংগা ইউনিয়নে আ.লীগ প্রার্থী ও গজারিয়ায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর জয়লাভতাহিরপুর অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায় এক লক্ষ টাকা জরিমানাসিএমপি’র স্কুল এন্ড কলেজকে নিটল মটরস লিমিটেড কর্তৃক ০১টি পরিবহন বাসের চাবি সিএমপি পুলিশ কমিশনার মহোদয়কে হস্তান্তর অনুষ্ঠানকুমিল্লা সদরের উঃকালিয়াজুরী কোড়ের পাড়ের রাস্তাটি আবাও দখল মুক্তদাউদকান্দিতে স্বামীকে ভিডিও কলে রেখে স্ত্রী’র আত্মহত্যা!একটু মাথা গোঁজার ঠাঁই খোঁচ্ছে রোকিয়ারায়পুরে পুকুরে ডুবে এসএসসি পরীক্ষার্থীর মৃত্যু

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফিরছেন স্টেইন

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতে যাচ্ছেন দক্ষিণ আফ্রিকান পেসার ডেল স্টেইন। নিজ মাঠে সফরকারী ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিমিত ওভারের সিরিজ দিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তিনি। বর্তমানে অস্ট্রেলিয়ার ঘরোয়া বিগ ব্যাশ লীগে মেলবোর্ন স্টার্সের হয়ে খেলা ক্রিকেট ডট কম এইউকে স্টেইন বলেন, ‘আমি জানি ইংল্যান্ডের বিপক্ষে আসন্ন টি-২০ সিরিজে আমি দলে থাকব, সর্বশেষ আলোচনায় এটাই আমার সঙ্গে কথা হয়েছিল। আমি দুই সপ্তাহ বিশ্রাম পাচ্ছি এরপর আবার খেলায় ফেরা।’

‘আমি ওয়ানডে দলেও থাকতে চাই-সত্যি বলতে ওয়ানডে ক্রিকেটে নিজকে কতটা মানিয়ে নিতে পারব আমি জানিনা। আমি ওয়ানডে খেলার চেস্টা করব তবে টি-২০ দলে অবশ্যই থাকবো।’

গত কয়েক বছর বিশেষ করে ২০১৬ সালের নভেম্বরে প্রোটিয়া দলের অস্ট্রেলিয়া সফরে কাঁধে ইনজুরিতে অস্ত্রোপচারের পর স্টেইনের ক্যারিয়ার হুমকিতে পড়ে যায়। তারপর থেকে তিনি মাত্র আটটি টেস্ট, নয়টি ওয়ানডে ও দুইটি টি-২০ ম্যাচ খেলেছেন। ২০১৯ বিশ্বকাপে ফেরার মধ্য দিয়ে তার দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান ঘটে। তবে আবারো কাঁধের ইনজুরিটা মাথাচাড়া দিয়ে ওঠায় কোন ম্যাচ না খেলেই টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নিতে হয় স্টেইনকে। সাত মাস পর এখন ৩৬ বছর বয়সী স্টেইন আগামী অক্টোবরে অনুষ্ঠেয় টি-২০ বিশ্বকাপে এক চোখ রেখে অনুশীলন করছেন।

গত বছর টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নেয়া স্টেইন বলেন, ‘আমার বড় লক্ষ্য এখন টি-২০ বিশ্বকাপ। এখন নিজের ক্রিকেটটাকে অনেক বেশি উপভোগ করছি, আমার শরীরের কাছে টেস্ট ক্রিকেটের চেয়ে চার ওভার বোলিং করাটা অনেক বেশি সহাজ।’

ইংল্যান্ডের জেমস এন্ডারসন ও স্টুয়ার্ট ব্রডের পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বর্তমান পেস বোলারদের মধ্যে তৃতীয় সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী স্টেইন। ২৬২ ম্যাচে তার উইকেট সংখ্যা ৬৯৬। এ পর্যন্ত পাঁচটি টি-২০ বিশ্বকাপ খেলা স্টেইন মনে করছেন আন্তর্জাতিক অঙ্গনে তার দীর্ঘ ১৫ বছরের অভিজ্ঞতা দক্ষিণ আফ্রিকার ফাস্ট বোরারদের আগামী প্রজন্মের জন্য সহায়ক হবে।

তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি ড্রেসিং রুমে একজন অভিজ্ঞ খেলোযাড় থাকা গুরুত্বপূর্ণ। কাগিসো রাবাদা বয়সে খুবই তরুণ। মাত্র ২৪ বছর বযসে সে দলের পেস আক্রমনের নেতৃত্ব দিচ্ছে। অন্য যারা ফাস্ট বোলার আছে তারা বয়সে রাবাদার চেয়ে আরো ছোট। আমি মনে করি দলে অভিজ্ঞ একজন থাকা তার (রাবাদা) অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। যাতে করে তাকে দেখাশুনা করতে পারে এবং সে জানে সে একাই দলে নেই।’

দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে চলমান চার টেস্টের সিরিজ শেষে তিনটি করে ওয়ানডে ও টি-২০ ম্যাচের সিরিজ খেলবে ইংল্যান্ড। আগামী ৪-১৬ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে সিমিত ওভারের এ সিরিজ। সূত্র : বাসস।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো