English|Bangla আজ ১লা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার বিকাল ৪:৪২
শিরোনাম
নওয়াপাড়ায় ট্রেনে কাটা পড়ে ভ্যান চালকের মর্মান্তিক মৃত্যুরাণীনগরে বাঁশ বোঝাই ভটভটিকে সহযোগীতা করতে গিয়ে প্রাণ গেল ময়েনেরভূঞাপুর থানা পুলিশের সহায়তায় ঠিকানা খুঁজে পেল হারিয়ে যাওয়া ৫ ছাত্রবীরমুক্তিযোদ্ধা তারা মৃধার বাড়ি-ঘর ভাঙচুরের প্রতিবাদে ভূঞাপুরে মানববন্ধননাগেশ্বরীতে জাতীয় বীমা দিবস ও বঙ্গবন্ধু বীমা মেলা অনুষ্টিতদিনাজপুরে নাগরিক উদ্যোগ এবং এসসিডিএস এর উদ্যোগে সুন্দর হাতের লেখা প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিতচরফ্যাশনে মেয়র- সাধারন কাউন্সিলদের ভোট বিন্যাসপ্রকাশিত খবরের প্রতিবাদ জানিয়ে কাজীর সংবাদ সম্মেলনচরফ্যাশন পৌর সভায় আওয়ামীলীগের জয়বান্দরবানে অজ্ঞাত ব্যাক্তির লাশ উদ্ধার

লর্ডহার্ডিঞ্জ বাজার থেকে সুলিজ বাজার পর্যন্ত সড়কটি যেন এক মরন ফাঁদে পরিণত

ভোলা প্রতিনিধি

দীর্ঘদিন ধরে মেরামতের অভাবে লালমোহন উপজেলাধীন লর্ডহার্ডিঞ্জ ইউনিয়নের লর্ডহার্ডিঞ্জ বাজার হতে সুলিজ বাজার পর্যন্ত প্রায় ৭ কিলোমিটার সড়ক খানাখন্দকে ভরে যাওয়ায় মানুষজন ও যান চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে।সড়কটি যেন মরণ ফাঁদে পরিনত হয়েছে।প্রধান ও একমাত্র সড়কটির বেহাল দশা হলেও নজর নেই কর্তৃপক্ষের।ফলে দিনের পর দিন দুর্ভোগ বেড়েই চলছে সাথে বাড়ছে দুর্ঘটনা।

জানা গেছে,লর্ডহার্ডিঞ্জ বাজার থেকে ইউনিয়ন পরিষদ, মাদ্রাসা বাজার,পূর্বে কাসেমগঞ্জ বাজার,দক্ষিণে কাশমির বাজার, চাঁদমিয়াঁর হাটা বাজার,ইয়াছিন মার্কেট, সুলিজ গেট সংলগ্ন সুলিজ বাজার যাওয়ার একমাত্র পাকা ও প্রধান সড়কটি সংস্কারের অভাবে প্রায় ৭ কিলোমিটার সড়কটি শত শত খানাখন্দকে পরিণত হয়েছে। কোনো কোনো জায়গায় এমন হয়েছে যে মাছ চাষ করার মতো পুকুরে পরিণত হয়েছে।এরুপ হওয়ায় দীর্ঘদিন থেকে সড়কটি চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পরেছে। ঘটছে প্রায় সময় দুর্ঘটনা। বছরের পর বছর পেরিয়ে গেলেও কোনো প্রকার সংস্কারের উদ্যোগ নেয়া হয়নি।অথচ ওই সড়ক দিয়ে প্রতিদিন শত শত ট্রাক, ট্রলি,অটোরিকশা, ভ্যান, কার্বাভ্যান, মোটর সাইকেল,ট্রাক্টরসহ বিভিন্ন ধরনের ভারী যানবাহন চলাচল করছে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে।সড়কটি সংস্কার না করায় লর্ডহার্ডিঞ্জ ইউনিয়নের একমাত্র বড় বাজার লর্ডহার্ডিঞ্জ বাজারের ( কাসেমগঞ্জ বাজার,কাসমির বাজার,চাঁদমিয়াঁর হাট, হাজ্বী ইয়াছিন মার্কেট, ও সুলিজ বাজার)এসব বাজারের সঙ্গে যোগাযোগ ব্যবস্থা প্রায় বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।লর্ডহার্ডিঞ্জ ইউনিয়নের এক ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীর আলম জানায়,লর্ডহার্ডিঞ্জ ইউনিয়নের কৃষকেরা বিভিন্ন রকম ফসলের চাষাবাদ করে ভালো ফসলও উৎপাদান হয় কিন্তুু তাদের কম দামে বিক্রি করতে হয়, বিশেষ করে,লর্ডহার্ডিঞ্জ বাজার থেকে শুরু করে পূর্বে কাসেমগনঞ্জ বাজার দক্ষিণে সুলিজ বাজার পর্যন্ত এসব স্থান থেকে প্রতিনিয়ত, ধান,পাট,সরিষা ডাল ও গমসহ বিভিন্ন প্রকার মালামাল দেশের বিভিন্ন স্থানে যাচ্ছে। যার কারণে শতশত মানুষের কর্ম স্থান হয়েছে কিন্তুু সড়কের বেহাল দশার কারণে ট্রাক বা মালবাহী গাড়িগুলো আসতে বড় সমস্যা হচ্ছে।হাট ইজারদার জানান,প্রতি বছর সরকার এই হাট থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা আয় করছেন।একমাত্র সড়কটি মরণ ফাঁদে পরিনত হওয়ায় বড় সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে এবং ধীরেধীরে ক্রেতা ও বিক্রেতা কমে যাচ্ছে।

ট্রাকচালক জসীম বলেন,সড়কের যা অবস্থা পুরো সড়কে গর্ত দিয়ে ভর্তি ফলে গাড়ি নিয়ে উক্ত সড়কে গেলে বড় মুশকিলে পড়তে হয়।অটোচালক সোহেল বলেন,রাস্তার যা অবস্থা দুটো অটো ক্রস করাই মুশকিল এর উপর ট্রাক ঢুকে পড়ছে ক্রস করতে যে কি বিপদে পড়তে হয় তা বলাই মুশকিল।

সড়কটি বেহাল দশার কারণে এসব স্থানের মানুষের কষ্টের শীমা বইতে হয়।

স্কুল মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বললে জানা যায়, স্কুল মাদ্রাসায় যেতে খুব সমস্যা হচ্ছে।স্কুল-মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা সড়কটির বেহাল দশা হওয়ার পূর্বে তারা লর্ডহার্ডিঞ্জ বাজার থেকে মাদ্রাসা বাজার অবস্থিত লর্ডহার্ডিঞ্জ ফাযিল ডিগ্রী মাদ্রাসায় যেত একজন মাত্র ৫ টাকা দিয়ে এখন ৩০ টাকা দিলেও যেতে রাজি হন না গাড়ি ওয়ালারা।এমনকি হেটে যেতে ও তাদের খুব কষ্ট বইতে হয় রাস্তায় ধুলিতে তারা অসুস্থ হয়ে পড়ে।

স্থানিয়দের অকুল অবেদন তাদের এই দূর্ভোগ দূর করতে অতি দ্রুত সড়কটি যেন সংস্কারণ করা হয়।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো