English|Bangla আজ ২১শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার রাত ৮:২৭
শিরোনাম
বান্দরবানে জীপগাড়ি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পরে নিহত ৩ আহত ৫ জনমহেশপুর অফিসার্স ফোরামের উদ্যোগে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গরীব ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরন।ভালুকায় গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু; স্বামী গ্রেফতারসাপাহারে মাল্টা চাষে ব্যাপক সম্ভাবনা: বাজারজাত নিয়ে বিপাকে চাষীরা!কালীগঞ্জে প্রেমে ব্যর্থ হয়ে যুবকের আত্মহত্যামোংলায় ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে কোস্ট গার্ডনান্দাইলে এমপি তুহিনের পিতার রোগ মুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিলমুদি দোকান করে সংসার চলছে কিন্ডারগার্টেন শিক্ষিকারমুরাদনগরের বাঙ্গরার পূৃর্বধৈইরে নবজাগরন সংগঠনের উদ্যাগে শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরনমেরকুটা নাইট শট সার্কেল টিভি কাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল ম্যাচ ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত।

ময়মনসিংহে জাপা’র পদবঞ্চিতরা রাজনীতিতে ছিল সক্রিয়

স্টাফ রির্পোটারঃ

ময়মনসিংহ জেলায় জাতীয় পার্টির রাজনীতিতে স্থানীয় ত্যাগী ও মাঠের নেতা কর্মীরা কেন্দ্রীয় রাজনীতিতে সোচ্চার থাকলেও মূলত তাদের কেউ যোগ্য পদ পায়নি। আবার অনেকে কেন্দ্রীয় কমিটিতে স্থান করে নিতে পারেনি। এ জেলা থেকে যারা স্থান পেয়েছে তাদের অনেকেই বিতর্কিত ও অতীতে দলীয় কোন কার্যক্রমে শর্ষে পরিমান ভূমিকা রাখতে পারেনি।

এ সকল ব্যক্তিরা কেন্দ্রীয় কমিটিতে স্থান পাওয়ায় অনেক নেতা কর্মীরা তাদের ক্ষোভ ব্যক্ত করেছেন। কেউ কেউ ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন তারা জাতীয় পার্টির রাজনীতি ছেড়ে দিবেন। এতো সব ক্ষোভের ভিতরে রয়েছে ময়মনসিংহে জাতীয় পার্টীর রাজনীতির অঙ্গন!

জানা যায়, জাতীয় পার্টীর রাজ নৈতিক অঙ্গন চাঙ্গা করতে কেন্দ্রীয় কমিটি গঠন করা হয়েছে। এই কমিটিতে স্থান করে নিতে সব চেয়ে অবহেলিত হয়ে রয়েছেন ময়মনসিংহ জেলা ও মহানগর জাতীয় পার্টীর ত্যাগী ও মাঠের রাজনীতির নেতা কর্মীরা। তারা কেন্দ্রীয় কমিটিতে রয়েছেন একেবারেই অবহেলিত পোষ্টে। আবার কেউ কেউ কমিটিতে স্থানই পায়নি।

ময়মনসিংহ জেলা বা মহানগর এলাকায় জাতীয় পার্টীর রাজনীতিতে সব চেয়ে বেশী ত্যাগী নেতা হিসেবে ধরবেন তাদের মধ্যে জাহাঙ্গীর আহম্মেদ, আব্দুল আওয়াল সেলিম, শরিফুল ইসলাম খোকন, আব্বাস আলী তালুকদার, মোশাররফ হোসেন, ইদ্রিস আলী প্রমূখ। কেন্দ্রীয় রাজনীতিতে স্থান হয়েছে জাহাঙ্গীর আহম্মেদ এর। পদ হলো এনজিও বিষায়ক সম্পাদ। জাতীয় পার্টীর দূর্সময়ে তাদেরকেই মাঠে পাওয়া যেত। মিটিং, মিছিল, সমাবেশে সব কিছুতেই আয়োজক ও সামনের সাড়িতে পাওয়া যেত।

তার থাকা কথা ছিল সম্পাদক মন্ডলীতে একটি ভালো পোস্ট। এ সকল নেতা কর্মীরা ছিলো মাঠ পর্যায়ের সংগঠক। আর ছিল মিছিল, মিটিং ও আন্দোলনের সৈনিক। তাদের মধ্যে অনেকে কারা নির্যাতিত লড়াকু সৈনিক রয়েছেন। অথচ সুসময়ে তারা আজ কেন্দ্রীয় কমিটিতে স্থান করে নিতে বা স্থান পেতে কতটা অসহায় তা আর বলার অবকাশ রাখেনা! দলের জন্য মরিয়া হয়ে এতোটা ত্যাগ স্বীকার করে কি পেলো তারা? এমন প্রশ্ন নেতা কর্মীদের মনে জাগতেই পারে?

সূত্র জানায়, ময়মনসিংহের জাতীয় পার্টীর নেতা কর্মীদের মাঝে এখন ক্ষোভ আর হতাশাই কাজ করছে। ময়মনসিংহে জাপার রাজনীতিতে ভবিষ্যত যেন অনিশ্চয়তায় ভূগছে। যাদেরকে কেন্দ্রীয় কমিটিতে স্থান দেয়া হয়েছে তাদের অনেকে দূর্নীতির দায়ে জেল খেটেছেন। আবার অনেকেই রাজনীতিতে খুব একটা সক্রিয় নয়। ফলে পদ বঞ্চিত নেতা কর্মীরা কতটা দলের জন্য ত্যাগী হবেন এটা এখন দেখার বিষয়।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো