English|Bangla আজ ১লা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার বিকাল ৪:২২
শিরোনাম
নওয়াপাড়ায় ট্রেনে কাটা পড়ে ভ্যান চালকের মর্মান্তিক মৃত্যুরাণীনগরে বাঁশ বোঝাই ভটভটিকে সহযোগীতা করতে গিয়ে প্রাণ গেল ময়েনেরভূঞাপুর থানা পুলিশের সহায়তায় ঠিকানা খুঁজে পেল হারিয়ে যাওয়া ৫ ছাত্রবীরমুক্তিযোদ্ধা তারা মৃধার বাড়ি-ঘর ভাঙচুরের প্রতিবাদে ভূঞাপুরে মানববন্ধননাগেশ্বরীতে জাতীয় বীমা দিবস ও বঙ্গবন্ধু বীমা মেলা অনুষ্টিতদিনাজপুরে নাগরিক উদ্যোগ এবং এসসিডিএস এর উদ্যোগে সুন্দর হাতের লেখা প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিতচরফ্যাশনে মেয়র- সাধারন কাউন্সিলদের ভোট বিন্যাসপ্রকাশিত খবরের প্রতিবাদ জানিয়ে কাজীর সংবাদ সম্মেলনচরফ্যাশন পৌর সভায় আওয়ামীলীগের জয়বান্দরবানে অজ্ঞাত ব্যাক্তির লাশ উদ্ধার

ভাঙ্গুড়ার খানমরিচ ইউনিয়নে জর্দায় আসক্তি হয়ে এক স্কুলছাত্রের মৃত্যু

রাজিবুল করিম রোমিও, ভাঙ্গুড়া (পাবনা) প্রতিনিধি:

ভাঙ্গুড়ায় জর্দা খেয়ে ইমরান হোসেন (১০) নামে এক স্কুলছাত্রর মৃত্যু হয়েছেে। শনিবার দুপুর দুইটার দিকে ইমরান নিজ বাড়িতে মারা যায়। ইমরান উপজেলার খানমরিচ ইউনিয়নের মহিষবাতান গ্রামের আব্দুল মান্নানের ছেলে ও নুন্দীমরিচ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্র।

জানা যায়, ইমরানের মা ও বাবা নিয়মিত জর্দা দিয়ে পান খায়। মা-বাবার সাথে সে নিজেও জর্দা খেতে শিখে যায়। এতে সে ধীরেধীরে জর্দায় আসক্ত হয়ে গত কয়েক মাস যাবত সে নিয়মিত জর্দা খেত।

এ অবস্থায় শনিবার দুপুরে ইমরান স্কুল থেকে বাড়ি ফিরে বাড়িতে রাখা হাকিমপুরী জর্দা হয়তো বেশি পরিমাণে খেয়ে ফেলে। এক সময় সে মাথা ঘুরে পড়ে যায়। তখন বাড়ির লোকজন তার মাথায় পানি ঢেলে সুস্থ করার চেষ্টা করে। কিন্তু মুহূর্তেই সে মারা যায়। 

এদিকে ইমরান মারা যাওয়ার পর থেকেই ওই বাড়িতে চলছে শোকের মাতম। ইমরানের নিকটাত্মীয় হেলাল খান বলেন, মা-বাবার সাথে ইমরান পান ও জর্দা খাওয়া শিখেছিল। একপর্যায়ে ইমরান জর্দার নেশায় প্রচন্ড আসক্ত হয়ে পড়ে। এ আসক্ত থেকে শনিবার সে বেশি পরিমাণে জর্দা খেয়ে সে মারা যায়।

মহিষবাতান গ্রামের ইউপি সদস্য আব্দুল হামিদ কালু মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, পরিবারের সদস্যদের অসচেতনতার কারণে ইমরান জর্দায় আসক্ত হয়ে পড়ে। পরে এই জর্দা খেয়ে তাকে মরতে হলো।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো