English|Bangla আজ ৮ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার বিকাল ৫:৩০
শিরোনাম

ফরদাবাদ ইউপি নির্বাচন: আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ইয়াকুব মাস্টার

নিজস্ব প্রতিবেদক

ইয়াকুব মাস্টার। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর উপজেলার ৯ নং ফরদাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি। একজন রাজনীতিবিদ, সাবেক শিক্ষক ও সমাজসেবক হিসেবে এলাকার সর্বমহলে তিনি সুপরিচিত। ফরদাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের আগামী নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী এই সমাজসেবক এরইমধ্যে ইউনিয়নজুড়ে প্রচার-প্রচারণা শুরু করেছেন। মাঠে-ময়দানে চা, কফি স্টলে ইয়াকুব মাস্টারের পক্ষে চলছে ব্যাপক আলোচনা।

জানা গেছে, বাঞ্ছারামপুর উপজেলার ফরদাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ইয়াকুব মাস্টার একজন বিশিষ্ট সমাজসেবক হিসেবে এলাকার সর্বস্তরের জনসাধারণের কাছে সুপরিচিত। তিনি রত্নগর্ভা মায়ের সন্তান। তাঁর বাবা মরহুম হাজী আবদুল মান্নান বেপারী ওরুফে মনু মিঞা বেপারী ও মা আমেনা বেগম ছিলেন শিক্ষানুরাগী ও মানব কল্যাণে নিবেদিত প্রাণ। পরিবারের ৯ ভাই-বোনের মধ্যে ইয়াকুব মাস্টার চতুর্থ। তিনি ১৯৬৩ সনের ১৪ সেপ্টেম্বর ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বাঞ্ছারামপুর উপজেলার
ফরদাবাদ গ্রামে এক মুসলিম সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৮৫ হতে ১৯৮৮ পর্যন্ত কুমিল্লার মুরাদনগরের রামচন্দ্রপুর হাইস্কুলে শিক্ষকতা করেন। এরপর ১৯৮৮ সালের অক্টোবরে টোকিও ল্যাঙ্গুয়েজ স্কুলের ছাত্র হিসেবে জাপান পাড়ি জমান ও ১৯৯৫ পর্যন্ত জাপানে চাকুরি করেন। এরপর দেশে ফিরে শুরু করেন ব্যবসা। ইয়াকুব মাস্টার ১৯৯৮ সালে ফরদাবাদ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করেন। ওই নির্বাচনে ইয়াকুব মাস্টাররের ব্যাপক জনপ্রিয়তা সত্ত্বেও রহস্যজনক কারণে জয় পাননি। ইয়াকুব মাস্টাররের পরিবার শিক্ষা-দীক্ষায় সমাজে সুপ্রতিষ্ঠিত। তাঁর ৪ ভাই ডক্টরেট ডিগ্রিধারী। তারা হলেন ময়মনসিংহের বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক অধ্যাপক ড. মো. ইদ্রিস মিঞা, গাজীপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় বিদ্যালয়ের শিক্ষক অধ্যাপক ড. মো. ইউনুস মিঞা, নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ইউসুফ মিঞা এবং একই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সহকারী অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আব্দুস সালাম। তার চারবোন বিবাহিত ও তাদের পরিবারও প্রতিষ্ঠিত। ইয়াকুব মাস্টারের স্ত্রী রওশন আরা জলি ঢাকার কুড়ি হাইস্কুলে শিক্ষকতা করেন। তার দুই মেয়ে। বড় মেয়ে ঐশী রাজধানীর নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ে বিবিএ অনার্স চতুর্থ বর্ষে ও ছোট মেয়ে উর্বশী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি অনুষদে ২য় বর্ষে অধ্যয়নরত।

ফরদাবাদ ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি আবুল কালাম খলিফা বলেন, ‘আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে এলাকাবাসীর সমর্থনে ফরদাবাদ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হয়েছেন ইয়াকুব মাস্টার। তিনি একজন কর্মীবান্বব, বঙ্গবন্ধু প্রেমিক ও জননেত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একজন দায়িত্বশীল নিবেদিত কর্মী। তার ফলস্বরূপ ১৪ জানুয়ারী ফরদাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের দলীয় ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে বাঞ্ছারামপুরের মাটি ও মানুষের নেতা জননেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা চার বারের এমপি প্রিয় ক্যাপ্টেন এ বি তাজুল ইসলাম তাজ সাংসদ মহোদয় ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম এবং সাধারণ সম্পাদক সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান জনাব নূরুল ইসলাম সহ উপজেলা আওয়ামী লীগের অন্যান্য নেতৃবৃন্দের নজরে আসেন ও ফরদাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মনোনীত হয়েছেন। তিনি চেয়ারম্যান হলে ইউনিয়নের মানুষ সুখে শান্তিতে বসবাস করতে পারবে। ‘

ফরদাবাদ ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল বাতেন বলেন,’ আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ইয়াকুব মাস্টার সর্বস্তরের জনগণের ভালেবাসায় সিক্ত। গত ১৪ জানুয়ারী ফরদাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সম্মেলনে ইয়াকুব মাস্টারের নেতৃত্বে স্বতস্ফুর্ত অংশগ্রহনে হাজার হাজার মানুষের মিছিল তার প্রমাণ। বিশেষ করে মা বোনদের উপচে পড়া মিছিলে যোগদান সেটা সকলের নজর কাড়ে ও যথেষ্টভাবে প্রমাণ করে। ইতিমধ্যে গণ মানুষের জোয়ার উঠেছে ইয়াকুব মাস্টারের পক্ষে। পথে ঘাটে মাঠে ময়দানে চা কফি স্টলে ইয়াকুব মাস্টারের পক্ষে ব্যাপক আলোচনা চলছে। বাস্তবিক অর্থেই এবার ফরদাবাদ ইউনিয়নবাসীর ব্যাপক জনগণের মন থেকে চাওয়া ইয়াকুব মাস্টার যেন নৌকা প্রতীকে মনোনয়ন পান। তাই বাঞ্ছারামপুরের মাননীয় সাংসদ জননেতা ক্যাপ্টেন (অবঃ) এ বি তাজুল ইসলাম তাজ ভাইসহ সকল নেতৃবৃন্দের কাছে সবিনয় অনুরোধ ইয়াকুব মাস্টার কে নৌকা মার্কা মনোনয়ন দিয়ে ফরদাবাদ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নির্বাচন করার সুযোগ দিবেন। তাহলে সংখ্যাগরিষ্ট মানুষের আশা আকাঙ্খা পূরণ হবে। ফরদাবাদ ইউনিয়ন বাসীর বেশীরভাগ ভোটার মনে প্রাণে বিশ্বাস করেন তাহলেই একটি উচ্চ শিক্ষিত ভদ্র পরিবার ও এক রত্নগর্ভা মাকে ও সম্মানিত করা হবে।’

এ ব্যাপারে ফরদাবাদ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী বিশিষ্ট সমাজসেবক ইয়াকুব মাস্টার বলেন, ‘দীর্ঘদিন যাবৎ ধারাবাহিক ভাবে জননেতা বাঞ্ছারামপুরের মাটি ও মানুষের নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা চার বারের সফল এমপি এ বি তাজুল ইসলাম তাজ সাংসদ মহোদয়ের বিশ্বস্ত কর্মী হিসেবে এলাকায় কাজ করে যাচ্ছি। ফরদাবাদ ইউনিয়ন বাসীকে মনে প্রাণে ভালোবাসি আর তাই তাদের বিপদ আপদে পাশে থাকার সর্বোচ্চ চেষ্টা করি। যদি নৌকা প্রতীক মনোনয়ন পাই তাহলে নিরংকুশ বিজয় পাবো বলে আমি আশাবাদী। আমার দীর্ঘদিনের লালিত স্বপ্ন ফরদাবাদ ইউনিয়নবাসীর সেবক হিসাবে কাজ করতে চাই৷ ইউনিয়নবাসীর দোয়া ও সমর্থন প্রত্যাশী৷’

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো