English|Bangla আজ ২৩শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার সন্ধ্যা ৭:৩৪
শিরোনাম
খেলাধূলা না করলে শারীরিক ভবে সুস্থ থাকা যায়না – রিমি এমপিকালীগঞ্জে এতিমদের মাঝে কম্বল বিতরণ করেন চুমকি এমপি।সাপাহারে খোট্টা পাড়া সরিষাভাঙ্গা মেশিনের ফিতার সাথে জড়িয়ে যুবকের মৃত্যু।বান্দরবানে ১৫০ শিক্ষার্থীকে দেয়া হলো বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা সহায়ক বইবান্দরবানে ত্রিমুখী সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ৬মুরাদনগরে মনিরুল আলম দিপুর উদ‍্যোগে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণবিদ্যুতপৃষ্টে চাচা ভাতিজার মৃত্যুতে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিলেন।ইউএনও একরামুল ছিদ্দিকমুজিববর্ষে পত্নীতলায় প্রধানমন্ত্রীর উপহার বাড়ি পাচ্ছেন ১১৪ টি ভূমিহীন পরিবারশ্রীমঙ্গলে আগামী কাল গৃহহীনদের জন্য নবনির্মিত ৩শত ঘর উদ্বোধন করা হবে আগামীকালপিএইচডি কর্তৃক চরফ্যাশনে মা ও কিশোর-কিশোরী সমাবেশ অনুষ্ঠিত

পলাশবাড়ীতে এক স্কুলছাত্রীকে বখাটে কর্তৃক উত্যক্তের অভিযোগ

আল কাদরি কিবরিয়া সবুজ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি

গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলার ২নং হোসেনপুর ইউনিয়নে মোছাঃ সাবিনা আক্তার (১৮) নামে এক স্কুল ছাত্রীকে বখাটে কর্তৃক উত্যক্তের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

থানায় অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ২নং হোসেনপুর ইউনিয়নের করিয়াটা গ্রামের মোঃ ফজল হক এর কন্যা ও গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার দ্বি-মুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেনীর স্কুলছাত্রী সাবিনা আক্তারকে দীর্ঘদিন থেকে একই গ্রামের রুহুল আমিনের বখাটে চরিত্রহীন ছেলে মতিয়ার রহমান স্কুলে আসা-যাওয়া ও বাড়ীর আশেপাশে দেখা পাইয়া উত্যক্ত করাসহ নানা কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিল।

উক্ত উত্যক্ত ও কু-প্রস্তাবের বিষয়ে সাবিনা আক্তার বাড়ীতে পরিবারকে অবহিত করে। এবিষয়ে বখাটে মতিয়ার রহমান এর বাবা-মাকে বলিলে সাবিনা আক্তারের উপর ক্ষিপ্ত হইয়া জানমালের ক্ষতিসাধন করার চেষ্টা করিতে থাকে। এরই এক পর্যায়ে বখাটে মতিয়ার রহমানের অন্যায়-অত্যাচারের কারণে প্রায় ৮ মাস পূর্বে মেয়েটিকে বিবাহ দেওয়া হয়।

বিবাহের পর হইতে মেয়েটি বাবার বাড়ী থেকে উক্ত স্কুলে লেখাপড়া চালিয়ে আসছিল। পূর্বের ধারাবাহিকতায় আবারো সাবিনাকে বাড়ীর আশেপাশে দেখা পাইলে ভবিষ্যৎ জীবন নষ্ট করার লক্ষে পুনরায় বিভিন্ন ভাবে উত্যক্ত করাসহ কু-প্রস্তাব দিয়ে আসিতেছে এবং তাতে রাজি না হওয়ায় একা পাইলে অপহরণ করাসহ জানমালের হুমকি প্রদান করেন।

এরই এক পর্যায়ে ১৯ জানুয়ারি রবিবার সকাল ১০ ঘটিকার সময় বসতবাড়ির উঠানে সাবিনা আক্তার একা দাঁড়িয়ে থাকাবস্থায় পুনরায় কু-প্রস্তাব দেয়। এতে রাজি না হওয়ায় তার সুন্দর যৌন কামনা-বাসনা চরিতার্থ করার উদ্দেশ্যে স্পর্শকাতর শরীরের বিভিন্ন স্থানে হাত দিলে সাবিনার ডাকচিৎকারে আলেক উদ্দিন, নুর হোসেন, জাহাঙ্গীর মিয়া উপস্থিত হইলে বখাটে মতিয়ার সুযোগমত পাইলে তার মুখে এসিড নিক্ষেপ করিয়া সুন্দর চেহারা নষ্ট করাসহ খুন-জখমের হুমকি প্রদান করিয়া দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।

উক্ত ঘটনার পর থেকে সাবিনা আক্তার স্কুলে যাওয়া আসা করতে ভয় পাচ্ছে ও তার পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। এবিষয়ে ভুক্তভোগী পরিবারটি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর দ্রুত জরুরি হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো