English|Bangla আজ ১৯শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬:৩০
শিরোনাম
ইটনায় যোগদান করলেন নতুন সমাজসেবা অফিসার মোহাম্মদ সাইফুল ইসলামকরিমগঞ্জে নতুন সমাজসেবা অফিসার যোগদানআগৈলঝাড়ায় মুজিব বর্ষ উপলে ৪০ দলের অংশ গ্রহনে ক্রিকেট টুর্নামেন্টের উদ্বোধনরংপুরে রাতের আধারে শীতার্থ মানুষের পাশে আ.লীগ নেতা মওলাচিরিরবন্দরে মুক্তমঞ্চ ব্লাড ডোনেট ফাউন্ডেশনের ১বছর মেয়াদের পূর্নাঙ্গ কমিটি গঠনঠাকুরগাঁওয়ে সেনুয়া ইউনিয়নে ওয়ার্ডের নাম পরিবর্তন করার প্রতিবাদে মানববন্ধনকুড়িগ্রামে শিক্ষা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে উৎকোচের অভিযোগে মানববন্ধনকুড়িগ্রামে ৪দফা দাবিতে সড়ক অবরোধ ও মানববন্ধন করেছে পলিটেকনিক শিক্ষার্থীরা।ফুলবাড়ীতে জমি দখলকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে নিহত- ১গঙ্গাচড়ায় সড়ক দূর্ঘটনায় কিশোরের মৃত্যু

গৌরনদীতে জাতীয় পতাকা পোড়ানোয় শিক্ষার্থীদের ক্ষোভ

আগৈলঝাড়া প্রতিনিধি

স্কুলের পুরাতন কাগজপত্রের সাথে জাতীয় পতাকা ফেলে পুড়িয়ে ফেলার ঘটনায় ভাষা আন্দোলন ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী মেধাবী শিক্ষার্থীদের মধ্যে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। ঘটনাটি এলাকায় ছড়িয়ে পরলে শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি অভিভাবক ও সচেতন মহলের মধ্যে চরম উত্তেজনা ছড়িয়ে পরে।

তারা ঘটনার সঠিক তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলার গৌরনদী পৌর এলাকার গেরাকুল আখতারুন্নেছা মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে। স্কুলের একাধিক শিক্ষার্থীরা জানায়, ১৯৯৩ সালে প্রতিষ্ঠিত এ স্কুল মাঠের একপাশে দীর্ঘদিন পূর্বে নামেমাত্র একটি শহীদ মিনার নির্মান করা হয়।

স্কুল কর্তৃপক্ষ সারাবছরই এ শহীদ মিনারের পাদদেশ ও তার আশেপাশে স্কুলের নির্মান সামগ্রী স্তুপ করে রাখে। ফলে শহীদ মিনারটি সারাবছরই থাকে পরিত্যক্ত। ২১ ফেব্রুয়ারী আসলেই প্রতিবছর ২০ ফেব্রুয়ারী বিকেলে কোনমতে শিক্ষার্থীরা শহীদ মিনারটি পরিস্কার করে। এরপর রাত বারোটা এক মিনিটে শহীদদের স্মরণে শিক্ষার্থীরা এই শহীদ মিনারে পুস্পমাল্য অর্পন করে।

শিক্ষার্থীরা আরও জানায়, অতিসম্প্রতি ওই শহীদ মিনার সংলগ্ন একটি সু-বিশাল বাথরুম নির্মান করেছে স্কুল কর্তৃপক্ষ। যাতে করে শহীদ মিনারের সম্মান ক্ষুন্ন করা হয়েছে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্কুলের একাধিক শিক্ষার্থীরা জানায়, বৃহস্পতিবার দুপুরে স্কুলের পুরাতন কাগজপত্র স্কুল মাঠে পুড়িয়ে ফেলা হয়।

পুড়িয়ে ফেলা ওই কাগজপত্রের সাথে একটি জাতীয় পতাকায় অগ্নিসংযোগ করা হয়। শিক্ষার্থীরা জানায়, বৃহস্পতিবার দুপুরে তারা মহান একুশে ফেব্রুয়ারীকে সামনে রেখে অযত্ন অবহেলায় পরে থাকা স্কুলের শহীদ মিনারটি পরিস্কার করতে এসে জাতীয় পতাকা পোড়ানোর দৃশ্য দেখে ক্ষোভে ফেঁটে পরেন। একপর্যায়ে তারা আগুনের মধ্যথেকে আংশিক পুড়ে যাওয়া জাতীয় পতাকা টেনে বের করেন।

স্কুলের প্রধানশিক্ষক মোঃ মুজিবুর রহমান তালুকদার বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। তবে খতিয়ে দেখা হবে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো