English|Bangla আজ ১৫ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬:১২
শিরোনাম
নাব্যতা সংকটের কারণে গাইবান্ধায় নৌ-চলাচল ব্যাহতসাপাহারে হতে সকলের অশ্রুসিক্ত ভালোবাসা নিয়ে বিদায় নিলেন কল্যাণ চৌধুরীরংপুর জেলা আ’লীগ নেতা ওয়াজেদুল ইসলামের মাতা আর নেইফুলপুর শুভসংঘের নয়া কমিটির যাত্রা শুরু, আশরাফ সভাপতি, পান্না সাধারণ সম্পাদকনরসিংদীতে ঢিলেঢালা লকডাউনচিরিরবন্দরে নির্দেশ অমান্য করে দোকান খোলায় ১০ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানাফেসবুক গ্রুপ প্রিয় খানসামা’র উদ্যোগে গরীব পরিবারের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম শুরুপহেলা বৈশাখ উপলক্ষে সাপাহারে রোগীদের মাঝে উন্নত খাবার পরিবেশনকরোনা কি পৃথিবীতে দুর্ভিক্ষের হাতছানি দিচ্ছে?ইউএনও-এসিল্যান্ডের নজরদারী- নান্দাইলে কঠোরভাবে লকডাউন পালন

জয়াসুরিয়ার ২২ বছরের রেকর্ড ভাঙলেন রোহিত

বিগত ২২ বছরের পুরোনো রেকর্ড ভাঙলেন ভারতের ড্যাশিং ওপেনার রোহিত শর্মা। এ রেকর্ড ভাঙতে তিনি পেছনে ফেলেছেন শ্রীলঙ্কান কিংবদন্তি সনাৎ জয়াসুরিয়াকে।

জানা গেছে, অসাধারণ পারফরম্যান্স করে চলতি বছর শেষ করলেন রোহিত শর্মা। তিন ফরম্যাট মিলিয়ে ৪৭ ইনিংসে ২ হাজার ৪৪২ রান করেন রোহিত। হাফ সেঞ্চুরি ১০টি। সেঞ্চুরিও ১০টি। ৫৩.০৮ গড়ে এ রান করেছেন তিনি।

২২ বছর আগে ১৯৯৭ সালে ২ হাজার ৩৮৭ রান করেছিলেন জয়াসুরিয়া। দুই ফরম্যাট মিলিয়ে ৪৪ ইনিংস খেলে এই রান করেছিলেন তিনি। জয়াসুরিয়া ৩১টি ওয়ানডে খেললেও ১৯৯৭ সালে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাট ছিল না।

তবে রোহিত শর্মা ও সনাৎ জয়াসুরিয়ার মধ্যে বড় পার্থক্য নেই। ২ হাজার ৪৪২ রান করতে ৪৭ ইনিংস পেয়েছেন রোহিত। আর তিন ইনিংস কম খেলে ২ হাজার ৩৮৭ রান করেছিলেন জয়াসুরিয়া।

তাদের পরে রয়েছেন বীরেন্দর শেবাগ ও ম্যাথু হেডেন। ২০০৮ সালে শেবাগ ৪৬ ইনিংস খেলে করেছিলেন ২ হাজার ৩৫৫ রান। আর ২০০৩ সালে হেডেন ৫২ ইনিংস খেলে করেছিলেন ২ হাজার ৩৪৯ রান। এছাড়া শীর্ষ পাঁচে আছেন পাকিস্তানের সাঈদ আনোয়ার। তিনি ১৯৯৬ সালে ৪৮ ইনিংস খেলে ২ হাজার ২৯৬ রান করেছিলেন।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো