English|Bangla আজ ২০শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার সকাল ১০:০০
শিরোনাম
সাপাহারের জবাই বিলে পরিযায়ী পাখি সংরক্ষনে অভয়াশ্রম প্রয়োজনআগৈলঝাড়ায় মুজিব বর্ষ উপলে ৪০ দলের অংশ গ্রহনে ক্রিকেট টুর্নামেন্টের উদ্বোধনচসিক নির্বাচন” নৌকার পক্ষে গণসংযোগে ফটিকছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যাননেত্রকোণা জেলার শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ হাত্রাপাড়ার কৃতী সন্তান তাজুল ইসলামস্মৃতি এমপি’র রোগমুক্তি কামনায় উপজেলা ছাত্রলীগ নেতাদের দোয়া মাহফিল ও খাদ্য বিতরণবান্দরবান শহরে অগ্নিকাণ্ডে বসতঘর আগুনে পুড়ে ছাইকুড়িগ্রামে স্ত্রী‌কে হত‌্যার ঘটনায় স্বামী বকুলের ফাঁ‌সি‌র আ‌দেশমিথ্যা মাদক মামলায় ফাঁসানোর প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলনঘাটাইলে ঘোড়াদৌড় দেখতে গিয়ে নিখোঁজ|| তিনদিন পর লাশ উদ্ধারঘাটাইলে বঙ্গবন্ধু অনলাইন ঐক্য পরিষদের উপদেষ্টা হলেন কাজী আরজু

ছাতকে আমন ধানের বাম্পার ফলন কৃষকের মুখে হাসি

সুজন তালুকদার ছাতক প্রতিনিধিঃ

ছাতকে আমন ধানের বাম্পার ফলন বিস্তৃত সোনালী ফসলের মাঠ এখন যেনো প্রাকৃতিক সৌন্দর্যকে আরও বিকশিত করে তুলেছে। কৃষকের মাঠে মাঠে ছড়ানো পাকা-আধাপাকা ধান কাটার মাড়াই করতে কৃষকের মনে আনন্দ উল্লাস, উপজেলাজুড়ে আমন ধানের বাম্পার ফলনে আনন্দ-উল্লাসে মেতে উঠেছেন কৃষক-কৃষাণীরা।

আগন মাসের উৎসবকে সামনে রেখে কৃষকরা পুরোদমে দলবেঁধে ধান কেটে বাড়ির আঙ্গিনায় এনে জড়ো করা শুরু করেছে মাড়াইকল দিয়ে ধান মাড়াই শেষে হলে সেই ধান বাতাসে উড়িয়ে বাকি কাজটুকু সম্পন্ন করে গোলায় তোলার কাজে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন কৃষাণীরা।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্র জানায়, ১৩টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা নিয়ে গঠিত এ উপজেলায় চলতি মৌসুমে আমন ধান চাষাবাদের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছিল ১২ হাজার ৩শ’ হেক্টর জমিতে। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় এ বছর লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে প্রায় ১২ হাজার ৬শ’ হেক্টর জমিতে ধান চাষাবাদ হয়েছিল সুত্র জানিয়েছে, উপজেলায় পুরোদমে ধান কাটা ও মাড়াইয়ের কাজ শুরু হয়েছে । তবে ইতোমধ্যে উপজেলার কিছু কিছু এলাকায় আগাম জাতের রোপণকৃত ধান কাটা শেষ হয়েছে। আর ক’দিন পরই এখানকার কৃষকরা ফসল কাটার উৎসবে পুরোদমে শেষ করে ফেলবে।

বিভিন্ন হাওর ঘুরে দেখা যায়, উপজেলার হাওরজুড়ে কাঁচা সোনায় রাঙ্গানো আমন ধানের শীষ হাওয়ার তালে তালে দোলছে। বিস্তৃত মাঠজুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে ধানের মৌ মৌ গন্ধ। ধানের নাচন দেখে কৃষকদের মুখে ফুটে উঠেছে স্বপ্ন বিভোর সোনালী হাসি।

স্থানীয় একজন কৃষক পরিবারের সম্তান আশরাফুর রহমান চৌধুরী বলেন আমি কৃষকের সন্তান তাই ব্যাবসা প্রতিস্টান পেলে সুনালী মাঠে সুনার ফসল বাড়ালে তুলতে ইচ্ছে করছে তাই মাঠে ধান কাটতে আসলাম পুরোদমে ধান কাটতে মাঠে আনন্দ উল্লাসে বিভিন্ন জাতের রোপণকৃত ধান কাটা শেষে মাড়াই দিয়ে বাড়ালে তুলছি তিনি আরো জানান জমিতে ধানের আবাদ করেছিলাম । চারা রোপনের পর আবহাওয়া পক্ষে থাকায় ধানের তেমন ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। অন্য মৌসুমের চেয়ে এবার চাষাবাদকৃত জমিতে ধানের ভালো ফলন হয়েছে। চলতি সপ্তাহে ধান কাটা শেষ হয়ে যেতে পারে

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সুত্র মতে কৃষিবান্ধব সরকার কৃষি উন্নয়নে নানা প্রদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। তারই ধারাবাহিকতায় আমন ধানের বাম্পার ফলন ও উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে আমরা মাঠ পর্যায়ে বিভিন্ন ধরণের কাজ করেছি। কৃষকরাও তা মাঠে কাজে লাগিয়েছেন।

তিনি আরো জানান, আগাম জাতের রোপনকৃত ধান ইতোমধ্যে কাটা শুরু শেষ পর্যায়ে চলতি মাসের মধ্যেই কৃষকেরা ধান কেটে আশানুরূপ ফলস গোলায় তুলতে পারবেন বলে তিনি জানান।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো