English|Bangla আজ ২৩শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার রাত ৮:০৪
শিরোনাম
পত্নীতলায় স্থায়ী ঠিকানা পেল গৃহহীন ১১৪ পরিবারআমরা প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ দিবোনা বরং তার জন্য দু’হাত তুলে দোয়া করবো-খাদ্যমন্ত্রীরূপগঞ্জে আগুনে পুড়ে একই পরিবারের নিহত ৪কালীগঞ্জে মুলগাঁও শীতার্তদের মাঝে কম্বর ও মাক্স বিতরণখেলাধূলা না করলে শারীরিক ভবে সুস্থ থাকা যায়না – রিমি এমপিকালীগঞ্জে এতিমদের মাঝে কম্বল বিতরণ করেন চুমকি এমপি।সাপাহারে খোট্টা পাড়া সরিষাভাঙ্গা মেশিনের ফিতার সাথে জড়িয়ে যুবকের মৃত্যু।বান্দরবানে ১৫০ শিক্ষার্থীকে দেয়া হলো বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা সহায়ক বইবান্দরবানে ত্রিমুখী সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ৬মুরাদনগরে মনিরুল আলম দিপুর উদ‍্যোগে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ

চরফ্যাশনে স্বামীকে খুঁজতে এসে ‘ধর্ষণের শিকার’ গৃহবধূ, গ্রেপ্তার ২

প্রতিনিধি, ভোলা

ভোলার চরফ্যানে স্বামীর খোঁজে এসে এক গৃহবধূ গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। গতকাল মঙ্গলবারের এ ঘটনায় চরফ্যাশন থানায় তিনজনকে আসামি করে ওই গৃহবধূ মামলা করেন। এ ঘটনায় পুলিশ দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে। বুধবার আদালত তাঁদের কারাগারে পাঠিয়েছেন।

ওই গৃহবধূর বাড়ি কিশোরগঞ্জে। তিনি দুই সন্তানের জননী। গ্রেপ্তার দুজন হলেন চরফ্যাশন পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের নয়ন মিস্ত্রি (২৩) ও মনির মাঝি (২৫)। নয়ন পেশায় রিকশাচালক। তাঁদের পাশাপাশি মোসলেহ উদ্দিন নামের আরেক ব্যক্তিকে আটক করা হয়। তবে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাঁকে ছেড়ে দেয় পুলিশ। রাসেল নামের এক আসামি এখনো পলাতক বলে পুলিশ জানিয়েছে।

মামলার এজাহারে বাদী লিখেছেন, চরফ্যাশন উপজেলার মিজানুর রহমান নামের এক ব্যক্তির সঙ্গে (গৃহবধূর পরিচয় প্রকাশ পাবে বলে স্বামীর নাম প্রকাশ করা হয়নি) চার থেকে পাঁচ বছর আগে তাঁর বিয়ে হয়। পোশাক কারখানায় কাজ করার সময় ঢাকায় তাঁদের পরিচয় হয়। সেই সূত্রেই বিয়ে। পরে তাঁদের দুটি সন্তান হয়। কিন্তু বিয়ের কয়েক বছরের মাথায় ওই ব্যক্তি তাঁকে ফেলে চরফ্যাশনে চলে আসেন। গৃহবধূ তাঁর খোঁজে মঙ্গলবার ঢাকা থেকে লঞ্চযোগে চরফ্যাশন উপজেলার বেতুয়া লঞ্চঘাটে নামেন।

এ সময় রিকশাচালক নয়ন তাঁকে জানান, তিনি ওই ব্যক্তিকে চেনেন। এরপর নয়ন তাঁকে পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের একটি বাগানবাড়িতে নিয়ে যান। সেখানে সারা দিন গৃহবধূকে আটকে রেখে সহযোগীদের নিয়ে ধর্ষণ করেন নয়ন। পরে সেখান থেকে মুক্তি পেয়ে তিনি বিষয়টি চরফ্যাশন থানা–পুলিশকে জানান।

চরফ্যাশন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সামসুল আরেফিন বলেন, পুলিশ তাৎক্ষণিক পৌরসভার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে। তদন্তে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত হওয়া গেছে। মামলায় তিনজনকে আসামি করা হয়েছে। ৩ নম্বর আসামিকে পুলিশ এখনো গ্রেপ্তার করতে পারেনি। ওই গৃহবধূকে ভোলা সদর হাসপাতালে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য পাঠিয়েছে। বুধবার এই দুজনকে আদালত কারাগারে পাঠিয়েছেন।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো