English|Bangla আজ ১৭ই জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার সকাল ৯:৫৯
শিরোনাম
গংগাচড়ায় জেলা আ.লীগের সাধারন সম্পাদকের পক্ষ থেকে শীতবস্ত্র বিতরণঅসহায় মানুষের পাশে শীতবস্ত্র নিয়ে রংপুরিয়ান-ওয়ার্ল্ড ওয়াইডছায়ানট সাংস্কৃতিক সংস্থা, ময়মনসিংহ এর ৩ যুগ পূর্তি উপলক্ষে গুণীজন সংবর্ধনা ও পুরস্কার বিতরণতরুণদের মাদক থেকে দূরে রাখতে খেলাধুলা বাড়াতে হবে ; তানভিরনাগেশ্বরী পৌরসভা নির্বাচনে মোহাম্মদ হোসেন ফাকু বিজয়ীগাইবান্ধা ও সুন্দরগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোটগ্রহণ শেষে চলছে গণনাগাজীপুরে যুবলীগের আয়োজনে মাইনুল হোসেন খান নিখিলের রোগমুক্তি কামনায়,দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।পলাশবাড়ীতে সন্ধি ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে মেয়র ও কাউন্সিলরদের সংবর্ধণা প্রদানফুলবাড়ীতে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণশান্তিপুর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হচ্ছে নাগেশ্বরী পৌরসভা নির্বাচন

চট্রগ্রাম সিআরবি জোড়াখুন মামলার প্রধান আসামি অজিত গ্রেপ্তার

আব্দুল করিম চট্রগ্রাম মহানগর প্রতিনিধি

চট্রগ্রাম সিআরবি জোড়াখুন মামলার প্রধান আসামি অজিত দাশ ওরফে অজিত বিশ্বাসকে গ্রেপ্তার করা করেছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।মঙ্গলবার (২১ জানুয়ারি) দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে বোয়ালখালীর কানুনগোপাড়ার নিজ বাড়ি থেকে অজিতকে গ্রেফতার করে।প্রসঙ্গত, ২০১৩ সালের ২৪ জুন রেলের টেন্ডার নিয়ন্ত্রণ নিয়ে সিআরবি সাত রাস্তার মাথায় জোড়াখুনের ঘটনা সংঘটিত হয়।

যুবলীগ নেতা হেলাল আকবর চৌধুরী বাবর ও সাইফুল ইসলাম লিমনের গ্রুপের মুখোমুখি মারামারিতে সাজু পালিত ও আট বছরের শিশু আরমান গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলে মারা যায়। ওই মামলায় অজিত বিশ্বাসকে প্রধান আসামি করে ৬৪জনকে অভিযুক্ত করে ২০১৭ সালের ২৭ নভেম্বর আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।

মামলাটি বর্তমানে বিচারের প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।
জোড়াখুনের মামলায় আদালতে দেয়া তদন্ত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পূর্বাঞ্চল রেলের ফতেহপুর লেভের ক্রসিং, পদুয়ার বাজার লেভের ক্রসিং ও ভাতশালা স্টেশন মেরামত কাজের টেন্ডার নিয়ন্ত্রণকে কেন্দ্র করে ২০১৩ সালের ২৪ জুন  সিআরবি সাত রাস্তার মোড়ে যুবলীগ নেতা হেলাল আকবর চৌধুরী ও সাইফুল আলম লিমনের অনুসারীরা মুখোমুখি অবস্থান নেন। অজিত বিশ্বাস হেলাল আকবর বাবরের অনুসারী। পূর্বের একটি রেলের দরপত্র নিয়ন্ত্রণের চাঁদার ভাগভাটোয়ারা নিয়ে সাজু পালিতদের সাথে অজিতের বিরোধ চলছিলো। ঘটনার দিন সাত রাস্তার মোড়ের একটি টং দোকানে গরম পুরি নিচ্ছিলো সাজু। ওই সময় পাওনা টাকা খুঁজতে গেলে অজিতকে খারাপ ভাষায় গালিগালাজ করে সাজু। এ সময় অজিত ক্ষিপ্ত হয়ে কোমরে থাকা পিস্তল বের করে মাথায়  ঠেকিয়ে গুলি করলে ঘটনাস্থলে মারা যায় সাজু পালিত।

এরমধ্যে লিমনের অনুসারীরা এগিয়ে এলে  এলোপাতাড়ি গুলি চালালে সাত রাস্তার মোড়ে দোকানের সামনে থাকা আট বছরের শিশু আরমান প্রকাশ টুটুল গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যায়।

জোড়াখুন ছাড়াও সিআরবি মসজিদের সামনে পুলিশের ওপর হামলার অভিযোগে দায়েরকৃত আরো একটি মামলায় গ্রেপ্তার পরোয়ানা রয়েছে অজিতের বিরুদ্ধে।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো