English|Bangla আজ ২৩শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার ভোর ৫:০৩
শিরোনাম
সাপাহারে খোট্টা পাড়া সরিষাভাঙ্গা মেশিনের ফিতার সাথে জড়িয়ে যুবকের মৃত্যু।বান্দরবানে ১৫০ শিক্ষার্থীকে দেয়া হলো বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা সহায়ক বইবান্দরবানে ত্রিমুখী সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ৬মুরাদনগরে মনিরুল আলম দিপুর উদ‍্যোগে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণবিদ্যুতপৃষ্টে চাচা ভাতিজার মৃত্যুতে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিলেন।ইউএনও একরামুল ছিদ্দিকমুজিববর্ষে পত্নীতলায় প্রধানমন্ত্রীর উপহার বাড়ি পাচ্ছেন ১১৪ টি ভূমিহীন পরিবারশ্রীমঙ্গলে আগামী কাল গৃহহীনদের জন্য নবনির্মিত ৩শত ঘর উদ্বোধন করা হবে আগামীকালপিএইচডি কর্তৃক চরফ্যাশনে মা ও কিশোর-কিশোরী সমাবেশ অনুষ্ঠিতচিলমারীতে জ্বালানী তেল সরবরাহ এবং ডিপো স্থাপনের দাবীতে মানববন্ধনচিলমারীতে পাট গুদামে আগুন, লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি

চট্টগ্রাম বন্দরে পড়ে আছে আমদানি করা পেয়াজ

আব্দুল করিম চট্টগ্রাম জেলা প্রতিনিধি

আমদানি করা বিপুল পরিমাণ পেঁয়াজ পড়ে আছে চট্টগ্রাম বন্দরে। বন্দর চত্বরে হিমায়িত কন্টেইনার ও খালাসের অপেক্ষায় প্রায় ২৯ হাজার টন পেঁয়াজ। আমদানিকারকরা বলছেন, বিভিন্ন দেশে থেকে একই সঙ্গে পেঁয়াজ আনায় দাম কমে গেছে, তাই খালাস করছেন না। যদিও বাজারে দাম কমার কোনো সুফল পাচ্ছেন না ক্রেতারা।ভারত রপ্তানি বন্ধের পর বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে পেঁয়াজ আমদানি শুরু করেন ব্যবসায়ীরা। গত ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে অক্টোবর পর্যন্ত মোট ১ লাখ ৪০ হাজার টন পেঁয়াজ আমদানির ঋণপত্র খোলা হয়। অন্যদিকে উদ্ভিদ সঙ্গনিরোধ কেন্দ্রের হিসেবে, গত রোববার পর্যন্ত প্রায় ৪৪ হাজার টন পেঁয়াজ খালাস করা হয়েছে। খালাসের অপেক্ষায় আরও ২৬ হাজার টন। যদিও লোকসানের ভয়ে বন্দর থেকে পেঁয়াজ খালাস করছেন না ব্যবসায়ীরা। আর আমদানি পর্যাপ্ত হলেও কম দামে পাচ্ছেন না ক্রেতারা।বিষয়টি নিশ্চিত করে চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সদস্য (প্রশাসন ও পরিকল্পনা) মো. জাফর আলম বলেন, পণ্য খালাস না করলে দাম বাড়বে; যা গিয়ে পড়বে ভোক্তার উপর। ভোক্তা পর্যায়ে দাম নিয়ন্ত্রণে মনিটিরংয়ের দাবি জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো