English|Bangla আজ ১লা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার সন্ধ্যা ৭:৫২
শিরোনাম
নওগাঁয় পরকীয়ার জেরে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে নারীর হাতের আঙ্গুল বিচ্ছিন্ন ॥ যুবক আটকপলাশবাড়ীতে জাতীয় বীমা দিবস পালিতগোবিন্দগঞ্জে স্বর্ণ ব্যবসার আড়ালে স্বর্ণ বন্ধকীর নামে রমরমা সুদের ব্যবসাবান্দরবানে বিভিন্ন ৯টি মামলার জব্দকৃত মাদকদ্রব্য ধ্বংসপলাশে নিখোঁজ কিশোর হত্যা মামলায় গ্রেফতার ২নওয়াপাড়ায় ট্রেনে কাটা পড়ে ভ্যান চালকের মর্মান্তিক মৃত্যুরাণীনগরে বাঁশ বোঝাই ভটভটিকে সহযোগীতা করতে গিয়ে প্রাণ গেল ময়েনেরভূঞাপুর থানা পুলিশের সহায়তায় ঠিকানা খুঁজে পেল হারিয়ে যাওয়া ৫ ছাত্রবীরমুক্তিযোদ্ধা তারা মৃধার বাড়ি-ঘর ভাঙচুরের প্রতিবাদে ভূঞাপুরে মানববন্ধননাগেশ্বরীতে জাতীয় বীমা দিবস ও বঙ্গবন্ধু বীমা মেলা অনুষ্টিত

গোবিন্দগঞ্জের কোচাশহর দ্বি-মুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম সাময়িকভাবে বরখাস্ত

আল কাদরি কিবরিয়া সবুজ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি-

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার কোচাশহর দ্বি-মুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলামকে সাময়িক ভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে। গত ১৩ ফেব্রুয়ারী নেতিঙ্খলনের অভিযোগে বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের সভায় তাকে বরখাস্ত করা হয়।

অভিভাবক সদস্য মঞ্জু মিয়া বলেন, গত ২০ জানুয়ারী প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম গাইবান্ধা যাওয়ার নাম করে পার্শ্ববর্তী পলাশবাড়ীর পৌরশহরের গৃধারীপুর চকপাড়া এলাকায় পূর্ব পরিচয়ের সূত্র ধরে এক প্রধান শিক্ষকের বাসায় গিয়ে কেউ না থাকার সুযোগে তার স্ত্রীর ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করে।

এসময় ওই মহিলার স্বামী বাসায় এলে সে পালিয়ে যাওয়ার চেস্টা করে। স্বামীর চিৎকারে প্রতিবেশী লোকজন তাড়া করে রফিকুলকে আটক করে পুলিশে সোর্পদ করে। ধর্ষণের অভিযোগে ওই দিনই নির্যাতিত মহিলা তাকে আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেন। বিষয়টি বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ অবহিত হওয়ার পর এক সভায় গত ১২ ফেব্রুয়ারী প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলামকে সাময়িক ভাবে বরখাস্ত করা হয়।

স্থানীয়রা জানান, প্রায় ১ মাস ৫ দিন জেলহাজতে থাকার পর গত ২৫ ফেব্রুয়ারী জামিনে মুক্তি পেয়ে আবারও বিদ্যালয়ের দায়িত্ব বুঝে নেওয়ার জন্য বিভিন্ন মহলে চেষ্টা তদবির করছে।

বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আইয়ুব হোসেন জানান, সাময়িক বরখাস্ত হওয়া প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম জামিনের পর বিদ্যালয়ে যোগদান করলেও অন্য একটি রেজিষ্টারে তার হাজিরা নেয়া হচ্ছে। এদিকে দুশ্চরিত্রের এই শিক্ষক যাতে আর বিদ্যালয়ের স্বপদে পদায়ন না হয় সেদিকে প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন বিদ্যালয়ের অভিভাবকরা।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো