English|Bangla আজ ৮ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার বিকাল ৫:৫৫
শিরোনাম

গাইবান্ধা ও সুন্দরগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোটগ্রহণ শেষে চলছে গণনা

আল কাদরি কিবরিয়া সবুজ, (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি:-

দ্বিতীয় ধাপে সারাদেশের ৬০ পৌরসভার সাথে গাইবান্ধা ও সুন্দরগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ শেষে চলছে গণনা। ১৬ জানুয়ারি শনিবার সকাল ৮টায় শুরু হয়ে ভোটগ্রহণ বিরতিহীনভাবে চলে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। শনিবার গাইবান্ধা ও সুন্দরগঞ্জ পৌর নির্বাচনে প্রচন্ড শীত আর দিনভর ঘন কুয়াশাকে উপেক্ষা করে উৎসবমুখর পরিবেশে প্রতিটি কেন্দ্রেই বিপুল সংখ্যক ভোটারের উপস্থিতিতে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ ভোট গ্রহণ শেষ হয়। এবার পুরুষ ভোটারের চেয়ে মহিলা ভোটারদের উপস্থিতি বেশী লক্ষ্য করা গেছে।

গাইবান্ধা পৌরসভার বিভিন্ন কেন্দ্র ঘুরে জানা গেছে, দুপুর ১টার মধ্যে প্রায় ৫৫ শতাংশ ভোট পড়ে। তবে গাইবান্ধা পৌরসভার সরকারি কারিগরি টেক্সটাইল ভোট কেন্দ্র ও সরকারপাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া অন্য সব কেন্দ্রের পরিস্থিতি ছিল শান্তিপূর্ণ। সুন্দরগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে কোথাও কোন অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। ভোট গ্রহণ উপলক্ষে দুই পৌরসভার প্রতিটি ভোট কেন্দ্রে ও শহরে পর্যাপ্ত আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়েন করা হয়। এ দুটি পৌরসভায় ৫ প্লাটুন বিজিবি দায়িত্ব পালন করে।

ভোট গ্রহণের জন্য শুধু গাইবান্ধা পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে ৯ জন ম্যাজিষ্ট্রেট, ২ জন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও তাদের সমন্বয়ের জন্য আরেকজন ম্যাজিষ্ট্রেট, র‌্যাবের তিনটি দল, পুলিশ সদস্য ৫শ’ ২৮ জন, আনসার ৪শ’ ৮০ জন দায়িত্ব পালন করে।

নির্বাচনে গাইবান্ধা পৌরসভায় তিন আওয়ামী লীগ ‘বিদ্রোহী’ প্রার্থীসহ ৮ জন মেয়র, ১৭ সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর এবং ৪১ জন সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থী ভোটযুদ্ধে রয়েছেন। এ পৌরসভায় মেয়র পদে আওয়ামী লীগ থেকে শাহ্ মাসুদ জাহাঙ্গীর কবীর (নৌকা), বিএনপি থেকে মো. শহিদুজ্জামান শহীদ (ধানের শীষ) এবং স্বতন্ত্র মো. আনওয়ার-উল-সরওয়ার (রেল ইঞ্জিন), মতলুবর রহমান (নারিকেল গাছ), মো. শামছুল আলম (মোবাইল ফোন), মো. আহসানুল করিম (চামুচ), মো. মির্জা হাসান (জগ) এবং ফারুক আহমেদ (ক্যারাম বোর্ড) প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। পৌর নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীর বিপক্ষে অংশ নেয়ায় আওয়ামী লীগ থেকে আহসানুল করিম, ফারুক আহমেদ ও মতলুবর রহমানকে বহিষ্কার করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

অপরদিকে সুন্দরগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে ৭ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তাঁরা হলেন- আওয়ামী লীগের আব্দুল্লাহ আল মামুন (নৌকা), বিএনপি’র মশিউর রহমান সবুজ (ধানের শীষ), জাতীয় পার্টির আব্দুর রশিদ ডাবলু (লাঙ্গল), এনডিপির আহসান হাবীব মাসুদ (সিংহ), স্বতন্ত্র খয়বর হোসেন মওলা (নারিকেল গাছ), স্বতন্ত্র দেবাশীষ কুমার সাহা (মোবাইল), স্বতন্ত্র আল শাহাদাত জিকো (জগ)। তবে মেয়র প্রার্থী খয়বর হোসেন মওলা ও দেবাশীষ কুমার সাহা দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে নির্বাচনে অংশ নেয়ায় তাদেরকে আওয়ামী লীগ থেকে সম্প্রতি বহিষ্কার করা হয়েছে। এছাড়া সংরক্ষিত মহিলা ১১ জনসহ কাউন্সিলর পদে ৩৩ জন নির্বাচনের মাঠে রয়েছেন।

প্রিজাইডিং কর্মকর্তারা জানান, সকাল থেকেই নারী ভোটাররা ভোট দেয়ার জন্য লাইনে দাড়িয়েছেন। তবে নারী ভোটারদের পাশাপাশি উল্লেখ্যযোগ্য সংখ্যক পুরুষ ভোটারদেরও ভোট দিতে দেখা গেছে।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো