English|Bangla আজ ১৯শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার বিকাল ৪:৪১
শিরোনাম
আগৈলঝাড়ায় মুজিব বর্ষ উপলে ৪০ দলের অংশ গ্রহনে ক্রিকেট টুর্নামেন্টের উদ্বোধনরংপুরে রাতের আধারে শীতার্থ মানুষের পাশে আ.লীগ নেতা মওলাচিরিরবন্দরে মুক্তমঞ্চ ব্লাড ডোনেট ফাউন্ডেশনের ১বছর মেয়াদের পূর্নাঙ্গ কমিটি গঠনঠাকুরগাঁওয়ে সেনুয়া ইউনিয়নে ওয়ার্ডের নাম পরিবর্তন করার প্রতিবাদে মানববন্ধনকুড়িগ্রামে শিক্ষা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে উৎকোচের অভিযোগে মানববন্ধনকুড়িগ্রামে ৪দফা দাবিতে সড়ক অবরোধ ও মানববন্ধন করেছে পলিটেকনিক শিক্ষার্থীরা।ফুলবাড়ীতে জমি দখলকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে নিহত- ১গঙ্গাচড়ায় সড়ক দূর্ঘটনায় কিশোরের মৃত্যুপলাশবাড়ীতে এশিয়ান টেলিভিশনের ৮ম বর্ষপূর্তি পালিতগোবিন্দগঞ্জে আনন্দ টিভির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যানের ১ম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

কিশোরগঞ্জে ভূয়া দলিল সৃজনকারী আইয়ুব আলীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে না প্রশাসন

মোক্তার হোসেন গোলাপ।কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি

কিশোরগঞ্জ জেলার মিঠামইন উপজেলায় খলাপাড়া গ্রামের আইয়ুব আলী ভূয়া দলিল দেখিয়ে বিজ্ঞ ল্যাণ্ড সার্ভে ট্রাইব্যুনাল থেকে আর এস রেকর্ড সংশোধনী মোকদ্দমার রায় নেওয়ার ঘটনা ধরা পরেছে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে ।এই জালিয়াতিকারী আইয়ুব আলীর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য কিশোরগঞ্জ জেলার রেজিস্ট্রার এবং সদর সাব রেজিস্ট্রারকে বার বার তাগিদ দেওয়া সত্বেও তাঁরা মানছে না ঐ নির্দেশ ।

জানা গেছে মিঠামইনের খলাপাড়া গ্রামের আইয়ুব আলী বিগত ২০১৩ সালে আর এস রেকর্ড সংশোধনী মোকদ্দমা দায়ের করে ।ল্যাণ্ড সার্ভে মোকদ্দমা নং ৭১১৭ এবং ৬৭৪১ নং মোকদ্দমা দায়ের করে । দায়েরকৃত মামলায় দলিল নং ২০৯২ সহ বেশ কয়েকটি ভূয়া দলিল দেখিয়ে বিজ্ঞ ল্যাণ্ডট্রাইব্যুনাল থেকে আর এস রেকর্ড সংশোধনী রায় হাসিল করে নেয়।

গত ৭\১২\২০১৬ তারিখে রায়ের চিঠি কিশোরগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা প্রশাসকের ভূমি রাজস্ব দপ্তরে আসলে সংশ্লিষ্টদাসকে রায়ের কার্যক্রম শুরু করেন।এবং ঐ সময় আইয়ুব আলী জালিয়াতির ঘটনা ধরা পরে।ফলে তা নিশ্চিত হওয়ার জন্য অতিরিক্ত জেলা প্রশাসকের ভূমি রাজস্ব দপ্তর জেলা রেজিস্ট্রারকে পত্র দেয় বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য। দলিল রেজিস্ট্রারের বালাম বইয়ের সাথে আইয়ুব আলীর ঐ সব দলিলের কোন প্রকার মিল খুঁজে পাওয়া যায়নি ।ফলে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) ৮৫৯ নং সারকে গত ৫\৭\২০১৭ তারিখে আইয়ুব আলীর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য রেজিস্ট্রারকে পত্র দেয়।

অথচ রেজিস্ট্রার আইয়ুব আলীর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা না নেওয়ায় গত ১২\১১\২০১৯তারিখে জেলা রেজিস্ট্রার এবং সদর সাব রেজিস্ট্রারকে এই বিষয়ে কি কি ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে পত্র প্রাপ্তির ৩ কার্য দিবসের মধ্যে জানানোর জন্য নির্দেশ দেওয়া হয় ।এত কিছুর পর ও রহস্য জনক কারণে প্রতারক আইয়ুব আলীর বিরুদ্ধে এখনও আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না ।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো