English|Bangla আজ ২৮শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার দুপুর ১:৩৭
শিরোনাম
সচেতনতা বার্তা নিয়ে পায়ে হেঁটে ৭০ কিঃমিঃ পথ পাড়ি দিল নোবিপ্রবি শিক্ষার্থী রিয়াদ!ফরদাবাদ ইউপি নির্বাচন: আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ইয়াকুব মাস্টারকুড়িগ্রামে কেমিস্টস্ সমাবেশ ও পরিচিতি সভাআত্রাইয়ে ফসলি জমিতে পুকুর খনন, খনন বন্ধে অভিযোগ: প্রশাসন নিরবগোবিন্দগঞ্জে অটোভ্যান চালক হামিদুল হত্যাকান্ডের ঘটনায় গ্রেফতার-৩পলাশবাড়ীতে মাসিক আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিতগংগাচড়ায় পিপিআর রোগ নির্মূলে বিনামুল্যে টিকা প্রদানের উদ্ধোধনআলোচিত সেই শিশু রফিকুলের দায়িত্ব নিলেন ইউপি চেয়ারম্যান হাসানঠাকুরগাঁওয়ে রুহিয়ায় দুই রাস্তার বেহাল দশাকুলিয়ারচরে প্রবীন আ. লীগ নেতা রমিজ উদ্দিন ভূইয়া আর নেই

এবারের একুশে বইমেলায় ই-বুক, ওয়াইফাই ব্যবস্থা রাখার প্রতিশ্রুতি মেয়রের

আল আমিন চট্টগ্রাম জেলা প্রতিনিধিঃ

এবারের বইমেলায় ফ্রি ওয়াই ফাই নেটওয়ার্ক সহ ই- বুক এর ব্যবস্থা রাখার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে আগামী ১০ ফেব্রুয়ারি সোমবার থেকে নগরীর এম এ আজিজ স্টেডিয়াম অনুশীলন মাঠে দ্বিতীয় বারে মত অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে অমর একুশে বইমেলা।

। এ মেলা ১০ ফেব্রুয়ারি থেকে ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০ পর্যন্ত চলবে। এ উপলক্ষে আজ শনিবার বই মেলা প্রাঙ্গণ ব্যবস্থাপনা কার্যালয় চত্বরে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন। সংবাদ সম্মেলনে সিটি মেয়র আলহাজ্ব আ.জ.ম.নাছির উদ্দীন লিখিত বক্তব্যে সিটি মেয়র বলেন, এ মেলায় সঙ্গীতানুষ্ঠান, রবীন্দ্র ও নজরুল উৎসব, বসন্ত বরণ উৎসব, কবিতা ও ছড়া উৎসব, তারুণ্যের উৎসব, আবৃত্তি উৎসব, বিতর্ক উৎসব, শিশু উৎসব, আন্তজার্তিক লেখক সম্মেলন ও পাঠক সমাবেশের আয়োজন থাকবে।

এ ছাড়া পেশাজীবী ও সাংবাদিক সমাবেশ, সাহিত্য আড্ডা, সাহিত্য-ইতিহাস-ঐতিহ্য ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক কুইজ ও চিত্রাংকনসহ নানা প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে। বইমেলার সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে দেশের জনপ্রিয় শিল্পীরা সংগীত পরিবেশন করবেন। এছাড়াও এতে চট্টগ্রামের আঞ্চলিক গান, লোক ও মরমী সংগীত, নাটক মঞ্চায়ন, জাদু প্রদর্শন ও নানা ধরনের অনুষ্ঠান আয়োজন করা হচ্ছে।

মেলাকে আকর্ষনীয় করার লক্ষ্যে আরো থাকবে চট্টগ্রামের সাংস্কৃতি কর্মী ও সাংস্কৃতিকমনা প্রেমীদে নিয়ে বিভিন্ন উপ পরিষদ গঠন ও তাদের সহযোগিতায় প্রতিদিনের অনুষ্ঠানমালা সাজানো হয়েছে বলে মেয়র উল্লেখ করেন। তিনি বলেন অনুষ্ঠানগুলোতে বাংলাদেশ ও দেশের বাইরের প্রথিতযশা কবি, লেখক, সাংবাদিকরা আলোনায় এবং জনপ্রিয় শিল্পীরা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন।

সব মিলিয়ে ইতিহাস, ঐতিহ্য-সংস্কৃতির সম্মিলন ঘটবে বলে প্রত্যাশা করে মেয়র বলেন জাতীয় জীবনে যেসব ব্যক্তি কৃতিত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন তাদেরকে একুশে স্মারক সম্মাননা পদক ও সাহিত্য পুরস্কার প্রদান করা হবে। ঢাকার আঙ্গীকে বই মেলা করার জন্য চট্টগ্রাম সৃজনশীল প্রকাশক পরিষদ এবং চট্টগ্রামের নাগরিক সমাজ, লেখক, সাংবাদিক,শিক্ষাবিদ ও সাহিত্য সাংস্কৃতিক সংগঠন এর নেতৃবৃন্দের মতামতের ভিত্তিতে মেলার প্রাঙ্গণ প্রায় ১,২০,৩০০ বর্গফুট এবং এতে ঢাকার ১১৮টি ও চট্টগ্রামের ৪০টি প্রকাশকের জন্য ২০৫টি স্টল বরাদ্দ করা হয়েছে।

সিটি মেয়র বলেন, মেলার সার্বিক নিরাপত্তার জন্য চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের নিরাপত্তা কর্মীর পাশাপাশি সিসি টিভি ক্যামেরার আওতায় থাকবে।

এবারের বইমেলা মুজিব বর্ষ উপলক্ষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিবেদন করা হয়েছে। তথ্যমন্ত্রী ড.হাছান মাহমুদ এমপি বই মেলার উদ্বোধন করবেন। সিটি মেয়র আ.জ.ম.নাছির উদ্দীন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন বলে জানা গেছে।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো