English|Bangla আজ ২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার বিকাল ৫:২০
শিরোনাম
সোনারগাঁওয়ে ঘুমের ঔষধ খাইয়ে ৫ম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণপ্রেমিকাকে বাঁচাতে গিয়ে ট্রেনের ধাক্কায় প্রাণ গেল তরুণেরসাংবাদিক মুজাক্কির হত্যার প্রতিবাদে ঘাটাইল প্রেসক্লাবের মানববন্ধন।সিদ্ধিরগঞ্জে চার্জ বিহীন ডার্চ বাংলা এজেন্ট ব্যাংকিং শাখার উদ্বোধনতুরাগে দৈনিক নাগরিক ভাবনা পত্রিকার ১ম বর্ষপূর্তি পালিত।করোনার ভ্যাকসিন সরকারের সাফল্য-শামীম ওসমানসূর্যমুখী চাষে কৃষক ও ফুল পিয়াসী সবারই আত্মতৃপ্তিদাগনভূঞা পৌরসভার কাউন্সিলরদের দায়িত্ব গ্রহন ও বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিতচুরি করতে এসে স্বর্ণসহ আকট চকরিয়া থানার ইউপি মেম্বার আরজ খাতুনবাংলাদেশ মানব কল্যাণ এসোসিয়েশন কেন্দ্রীয় কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা!

এখনো মেরামত হয়নি টাংগুয়ার হাওরের ঝুঁকিপূর্ণ ওয়াচ-টাওয়ার

আহাম্মদ কবির তাহিরপুর হতেঃ

ঘুরতে আশা ভ্রমন পিপাসুদের মরণফাঁদে পরিণত হলেও এখনো মেরামত হয়নি প্রকৃতির সৌন্দর্যের লীলাভূমি দেশের দ্বিতীয় রামসার সাইট টাংগুয়ার হাওরে ঝুঁকিপূর্ণ ওয়াচ টাওয়ারটি।

নির্মাণকালে নিরাপত্তা বেষ্টনী (গ্রিল) বেশ ভালো থাকলেও বিগত কয়েক বছর যাবৎ তা ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে এই ওয়াচ-টাওয়ারটি। তা নিয়ে বিগত কয়েক বছর ধরে বিভিন্ন অনলাইন ও প্রিন্ট মিডিয়ায় সংবাদ প্রকাশ করা হলেও এখনো মেরামত হয়নি এই ঝুঁকিপূর্ণ ওয়াচ-টাওয়ারটি।

স্থানীয়দের তথ্যমতে জানাযায় বিগত কয়েকবছর যাবৎ টাংগুয়ার হাওরে নির্মিত ওয়াচ টাওয়ারে নিরাপত্তা বেষ্টনী মধ্যভাগের গ্রিলগুলো নেই,পাশের গ্রিলগুলোও উধাও। অথচ এই ওয়াচ টাওয়ারে উঠে টাঙ্গুয়ার প্রাকৃতিক সৌন্দর্য অবলোকন করার জন্য দেশবিদেশ হতে প্রতিদিন আসছেন শত শত বা হাজারো পর্যটক। আর যে কেউ বা কোনো ভ্রমণকারী যদি একটু বেখেয়ালে হাঁটেন তাহলেই ঘটতে পারে যে কোন অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ।আর যদি কোন কারন বসত এ-ই ওয়াচ-টাওয়ার থেকে পাড়ে যায় তাহলে সোজা দেড়শ ফিট নিচে পড়তে হবে।এতে বাঁচা হয়তোবা কঠিন কিন্তু বেঁচে থাকলে সারাজীবনের জন্য পঙ্গুত্ব বরণ ছাড়া উপায় নেই।

স্থানীয় সচেতন মহল জানান বিগত কয়েক বছর যাবৎ, নিরাপত্তা বেষ্টনী বা গ্রিলগুলো দুষ্কৃতকারীরা নিয়ে গেছে তাদের ব্যাপারে কিছু নাই-ব বল্লাম।কিন্তু যে সকল রথি মহারথিরা এখানে বেড়াতে এসে এর দুর্দশা দেখে যান (ছোট বড় আমলা থেকে বিভিন্ন দপ্তরের প্রধানগণ) তাদের কি কোনো কিছু করার বা বলার নেই তাদের কোনো দ্বায়িত্ববোধ নেই।আমরা জনসাধারণেরা তাদের এহেন আচরণের জন্য লজ্জিত হই।

আমাদের জানা মতে,এখানে সরকারের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা সহ ফটোগ্রাফার,বিভিন্ন পত্রপত্রিকার সাংবাদিকরাও আসেন অবিরত অহরহ।তারা টাংগুয়ার হাওরের প্রকৃতির সৌন্দর্যকে উপভোগ করেন এবং তাদের মসল্লা মাখানো হাজারো রকম ছবি আমরা দেখে তৃপ্ত হই,কিন্তু টাংগুয়ার ঝুঁকিপূর্ণ হাওরের ওয়াচ টাওয়ার এবং হাওরে প্লাস্টিক বা ময়লা আবর্জনা ফেলে হাওড়ের পরিবেশ বা পানি দুষণের ব্যাপারে কাউকে তেমন কথা বলতে দেখেনি।হয়তোবা কেউ কেউ লিখলেও বা কথা বললেও কর্তৃপক্ষ এখনো বিষয়টি দৃষ্টিপাত দেননি।

তারা বলেন ওয়াচ টাওয়ারের প্রতি কর্তৃপক্ষের আশুদৃষ্টি না থাকলে যেকোনো সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারে। চলে যেতে পারে তরতাজা প্রাণ। বেড়াতে এসে উদ্বিগ্ন হয়ে বা ভয়ে ওয়াচ টাওয়ারে পদার্পন আর আজরাইলে সঙ্গী হওয়াটা একই জিনিস। তাই ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষসহ সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদ, উপজেলা পরিষদ ও উপজেলা প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করে স্থানীয় সচেতন মহল বলেন দয়া করে ওয়াচ টাওয়ার ব্যবস্থাপনার দিকে একটু খেয়াল বা নজর দিন, দুর্ঘটনা থেকে পর্যটকদের নিরাপত্তা সু-সংহত করুন। নয়তো কোনো প্রকার দুর্ঘটনার দ্বায়ভার এড়িয়ে যাবার সুযোগ আপনাদের কারোর থাকবে না, আপনারা আপনাদের দায়িত্ব এড়িয়ে যেতে পারেন না। আশা করব অনতিবিলম্বে এর আশু ব্যবস্থাপনা ও সুষ্ঠু সমাধান হবে।

এ ব্যাপারে শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়ন পরিষদের ইউপি সদস্য সাজিনুর মিয়া বলেন এ-ই ঝুঁকিপূর্ণ ওয়াচ-টাওয়ারটি অতিদ্রুত মেরামত করা প্রয়োজন।

এব্যাপারে টাংগুয়ার হাওর কেন্দ্রীয় সার্বিক গ্রাম উন্নয়ন সমবায় সমিতির কোষাধ্যক্ষ আবুল কালাম বলেন ঝুঁকিপূর্ণ ওয়াচ-টাওয়ারটি মেরামত না হলে যে কোনদিন অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটে যেতে পারে তাই দ্রুত মেরামত করা প্রয়োজন।

এব্যাপারে শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব খসরুল বলেন আমি বিগত কিছুদিন পূর্বে এ-ই ওয়াচ-টাওয়ারে গিয়েছিলাম দেখে মনে হয়েছে ওয়াচ-টাওয়ারটি খুবই ঝুঁকিপূর্ণ, এটা অতিদ্রুত মেরামত করা প্রয়োজন,তাই আমরা কিছুদিনের মধ্যেই শক্তভাবে মেরামত করার জন্য উপর মহলে আলোচনা করে মেরামত করার চিন্তা করছি।

এ ব্যাপারে তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিজেন ব্যানার্জির সাথে যোগাযোগ করার জন্য, উনার সরকারি মোবাই ফোনে একাধিকবার চেষ্টা করলেও ফোন রিসিভ না করায় যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো