1. admin@bsalnewsonline.com : admin :
  2. editor@dailyekattorjournal.com : জাকির আহমেদ : জাকির আহমেদ
  3. zakirahmed0112@gmail.com : Zakir Ahmed : Zakir Ahmed
  4. marcia-tedbury18@lostfilmhd720.ru : marciatedbury :
  5. rayhanchowdhury842@gmail.com : Rayhan :
  6. m.r.rony.007@gmail.com : rony : MahamudurRahm Rahman
April 19, 2021, 11:42 am
Title :
রাণীনগরে কৃষকের মাঝে কম্বাইন হারভেস্টার মেশিন বিতরণ নান্দাইলে বিধবার বাড়িতে খাদ্যসামগ্রী নিয়ে ইউএনও এরশাদ উদ্দিন নান্দাইলে ৩ শতাধিক পরিবারের মাঝে আফতাব উদ্দিন ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের উদ্যোগে ফুড প্যাক বিতরণ রাণীনগরে অভ্যন্তরিন গম সংগ্রহ অভিযানের উদ্বোধন অন্তসত্তা স্ত্রী’র কাছে যাওয়া হলো না ইমাম মাসুম বিল্লাহ’র বসুরহাটে মির্জা অনুসারীদের গুলিতে উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক গুলিবিদ্ধ রাণীনগরে পুকুরে ভাসমান ড্রামের মধ্য থেকে অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার গোবিন্দগঞ্জে অরক্ষিত পানির ট্যাঙ্কে পড়ে আপন দুই ভাইয়ের মৃত্যু পটিয়ার ভাটিখাইনে খালেদা জিয়াসহ নেতৃবৃন্দ রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত নান্দাইলে আফতাব উদ্দিন ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট রোজাদারদের ঘরে পৌঁছে দিচ্ছে রমাদান ফুড প্যাক

অবশেষে ১৫ বছর পর পাকিস্তান থেকে পেঁয়াজ আমদানি করছে বাংলাদেশ

  • Update Time : Sunday, November 17, 2019
  • 0 Time View

পাকিস্তান থেকে অন্তত ১৫ বছর পর পেঁয়াজ আমদানি করছে বাংলাদেশ।

জানাগেছে, সম্প্রতি করাচি ভিত্তিক রোশান এন্টারপ্রাইজের সঙ্গে ঢাকার তাসো এন্টারপ্রাইজের মধ্যে ৩০০ টন পেঁয়াজ নিয়ে চুক্তি হয়েছে।

পাকিস্তানের দ্য নিউজ ইন্টারন্যাশনাল তাদের এক প্রতিবেদনে জানায়, ট্রেড ডেভেলপমেন্ট অথোরিটি অব পাকিস্তানের (টিডিএপি) এক কর্মকর্তা খবরটি নিশ্চিত করেছেন।

এতে বলা হয়, প্রতিবেশী দেশের ওপর ভারতীয় সবজি রপ্তানির নিষেধাজ্ঞার কারণে বাংলাদেশের স্থানীয় বাজারে পেঁয়াজের দাম বেড়ে গেছে।

ওই কর্মকর্তা জানায়, কমপক্ষে ১২ কনটেইনার পেঁয়াজ বাংলাদেশে যাবে। এরপর আরও রপ্তানি হবে।

ভারতীয় নিষেধাজ্ঞার কারণে পাকিস্তান সম্ভাব্য বাজার হিসেবে হাজির হয়েছে বলে জানান ওই কর্মকর্তা।

তিনি আরও জানান, পেঁয়াজ বাণিজ্য নিয়ে দুই দেশের সরকারও একমত হয়েছে।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, বাংলাদেশ প্রতিবছর ৭ লাখ থেকে ১১ লাখ টন পেঁয়াজ আমদানি করে। এর ৭৫ ভাগই যায় ভারত থেকে।

পাকিস্তানি পণ্যের বাজার হিসেবে বাংলাদেশ বেশ গুরুত্বপূর্ণ গন্তব্য বলেও জানানো হয় প্রতিবেদনে। এশিয়ার মধ্যে চীনের পর বাংলাদেশেই বেশি পণ্য রপ্তানি করে দেশটি।

স্থানীয় বাজারে সরবরাহ নিশ্চিত করার জন্য তুরস্ক, মিয়ানমার ও মিসরের মতো বিকল্প বাজারের সন্ধান করছে ঢাকা।

Please Share This Post in Your Social Media

Comments are closed.

More News Of This Category